প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আগামী বাজেট হবে ব্যবসাবান্ধব : এনবিআর চেয়ারম্যান

খুলনা প্রতিনিধি : আগামী ২০১৮-১৯ অর্থবছরের বাজেট জনকল্যাণমুখী ও ব্যবসাবান্ধব বলে জানিয়েছেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া। তিনি বলেন, বাংলাদেশের মতো ছোট একটি দেশের বাজেট এখন চার লাখ কোটি টাকা, যা প্রতিবছরই বৃদ্ধি পাচ্ছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে স্থানীয় একটি হোটেলে খুলনা বিভাগের অংশীজনদের সঙ্গে ২০১৮-১৯ অর্থ বছরের বাজেট আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন এনবিআর চেয়ারম্যান। জাতীয় রাজস্ব বোর্ড ও খুলনা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজ যৌথভাবে এই সভার আয়োজন করে।

এনবিআর চেয়ারম্যান আরও বলেন, ব্যক্তি পর্যায়ে আয়করের সীমা আড়াই লাখ টাকার পরিবর্তে সাড়ে তিন লাখ টাকা করা যায় কিনা তা বিবেচনাধীন আছে। তিনি মোংলা বন্দরকে আরও গতিশীল এবং মোংলা কাস্টমস হাউজকে আরও সক্রিয় হওয়ার পরামর্শ দেন। এছাড়া ভোমরা স্থল বন্দর দিয়ে ২৭ প্রকারের অধিক পণ্য আমদানী ও সকল ক্ষেত্রে সাফটা নিয়ম একই করারও ঘোষণা দেন।

ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ্যে এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, আমদানির ওপর বেশি জোর না দিয়ে রপ্তানির ওপরও গুরুত্ব দিতে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, যশোরকে কর অঞ্চল করার প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে।

সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ড এর সদস্য (শুল্ক নীতি ও আইসিটি) মো. ফিরোজ শাহ আলম, সদস্য (কর নীতি) কানন কুমার রায় এবং সদস্য (মূসক নীতি) মো. রেজাউল হাসান।

স্বাগত বক্তব্য দেন, কর আপিলের কর কমিশনার প্রশান্ত কুমার রায়। সভায় সভাপতিত্ব করেন খুলনা চেম্বারের সভাপতি কাজী আমিনুল হক। এসময় বিভিন্ন বিভাগের সরকারি উর্ধ্বতন কর্মকর্তা, ব্যবসায়ী নেতা এবং গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

বাজেট আলোচনায় বক্তারা করমুক্ত আয়সীমা সাড়ে তিন লাখ টাকায় নির্ধারণ, ভ্যাটের হার বৃদ্ধি না করা, মোংলা বন্দরে আমদানী পণ্য নির্ধারণ করা, ভোমরা স্থল বন্দরে সাফটা কার্যকর করা, কর আইন সম্পর্কে দক্ষদের ট্রাইব্যুনালে নিয়োগ দেওয়া, কর প্রদান পদ্ধতি সহজ করা এবং সকল প্রকার হয়রানি বন্ধ করার দাবী জানান।

এনটিভি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত