প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে অযোগ্য ঘোষণা করেছে আদালত

লিহান লিমা: পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী খাজা মুহাম্মাদ আসিফকে সংসদ সদস্য পদে অযোগ্য ঘোষণা করেছে দেশটির আদালত। সংযুক্ত আরব আমিরাতের ওয়ার্ক পারমিট থাকার কারণে সংবিধানের ৬২ অনুচ্ছেদের একটি ধারার আওতায় আসিফের বিরুদ্ধে এ রায় দেয়া হয়। বৃহস্পতিবার ইসলামাবাদ হাইকোর্টের তিন সদস্যের বেঞ্চ এ রায় দেন।

আদালত আরো জানায়, ‘২০১৩ সালের সাধারণ নির্বাচনে আসিফ প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার যোগ্য ছিলেন না।’ এ রায়ের একটি কপি জাতীয় সংসদের স্পিকার এবং একটি কপি নির্বাচন কমিশনকে দেয়ার নির্দেশনা দিয়েছে আদালত। এদিকে, খাজা আসিফ রায়কে চ্যালেঞ্জ করবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, কখনো নিজের ওয়ার্ক পারমিটের কথা তিনি গোপন করেন নি। রায়ের আগে আমিরাতের ওই আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানটিতে আসিফ পূর্ণকালীন কাজ করতেন না, এমন একটি চিঠি আদালতে দাখিল করেছিলেন আসিফ।

এর আগে নির্বাচনে মনোনায়ন পাওয়ার কাগজপত্রে বিদেশ চাকরি ও বেতনের পূর্ণাঙ্গ বিবরণ না দেয়ায় আসিফের বিরুদ্ধে আদালতে পিটিশন দায়ের করেছিল ইমরান খানের দল তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই)। পাকিস্তান সংবিধান অনুযায়ী, দেশটির পার্লামেন্ট সদস্য হওয়ার পূর্বশর্ত অনুযায়ী প্রার্থীকে অবশ্যই সৎ ও ন্যায়বান হতে হবে।

এদিকে কিছুদিন আগেই আদালত খাজা আসিফের দলের প্রধান ও তৎকালীন প্রধানমন্মন্ত্র নওয়াজ শরীফকে আজীবনের জন্য সরকারি দায়িত্ব পালনে অযোগ্য বলে রায় দেন। এর প্রক্ষিতে পরবর্তীতে ইস্তফা দিতে বাধ্য হন নওয়াজ শরীফ। তাই আসিফের রায় পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজের জন্য আরেকটি বিপর্যয় হিসেবে দেখা হচ্ছে। অপরদিকে পিটিআইএর সমর্থকরা এই রায়ে উল্লাস প্রকাশ করে স্লোগান দিয়েছেন। যদিও একই ধারায় গত ১৫ ডিসেম্বর পিটিআইএর নেতা জাহাঙ্গীর তারিনকে অযোগ্য ঘোষণা করেছিল পাকিস্তানের হাইকোর্ট।

প্রসঙ্গত, খাজা আসিফ ১৯৯১ সালের পর থেকে শিয়ালকোট আসনে টানা জয়লাভ করে আসছেন। ২০১৭ সালে তিনি পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব পান। ডন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত