প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আধুনিক, স্বস্তিতে বাসযোগ্য মহানগরী গড়তে সক্ষম জনপ্রতিনিধি চায় খুলনা নগরবাসী

হ্যাপী আক্তার : আধুনিক, উন্নত ও স্বস্তিতে বাসযোগ্য মহানগরী গড়তে সক্ষম, এমন জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত করতে চায় খুলনা নগরবাসী। এবারের কেসিসি নির্বাচনে নগরবাসীর প্রত্যাশা এমন প্রতিনিধি, যিনি শুধু প্রতিশ্রুতির মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকবেন না। জনগণের সাথে সম্পৃক্ত থেকে গড়ে তুলবেন আধুনিক ও উন্নত মহানগরী।

সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচনে ইতোমধ্যে প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র জমা, যাচাই বাছাই ও প্রতীক বরাদ্দ শেষ হয়েছে।

আওয়ামীলীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টিসহ বিভিন্ন দলের প্রার্থীরা সাংগঠনিক তৎপরতা শুরু করেছে। সেই সাথে নগরবাসীও ভাবতে শুরু করেছেন কেমন জনপ্রতিনিধি তারা নির্বাচিত করবেন।

খুলনা, সুশাসনের জন্য নাগরিক-সুজনের সদস্য সচিব এডভোকেট কুদরত-ই-খুদা বলেছেন, সিটি করপোরেশনের মোট তিনটি আয়ের উৎসব রয়েছে। একটি হলো জনগণের টাকা (ট্যাক্স), সরকারের অনুদান এবং বাইরের অনুদান। সুতরাং বাইরের অনুদান নেবার ক্ষমতা থাকা দরকার, যিনি মেয়র হবেন। তার সাথে যিনি জনগণের সাথে সম্পৃক্ত থেকে জনগণকে উৎসাহিত করে খুলনা উন্নয়নের কার্যক্রমে অংগ্রহণ করতে পারবেন।

বৃহত্তম খুলনা উন্নয়ন সংগ্রাম সমন্বয় কমিটির মহাসচিব শেখ মো. আশরাফ উজ জামান বলেছেন, মেয়র প্রার্থীকে মেধা, যোগ্যতা, মননশীলতা এবং বিভিন্ন পদক্ষেপের মধ্য দিয়ে কর্মসংস্থানের সৃষ্টি করতে পারবে। সে ধরনের জনপ্রতিনিধি বান্ধব একজন প্রার্থীকে নির্বাচিত করা উচিত।

নির্বাচিত হলে পরিবেশ সম্মত গ্রীন ও ক্লিন সিটি গড়ে তুলার কথা জানিয়েছেন বিএনপির মেয়র প্রার্থী। অন্য দিকে আওয়ামী লীগ মেয়র প্রার্থীর প্রতিশ্রুতি হচ্ছে উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষা করে আধুনিক তিলোত্তমা মহানগরী গড়তে চান আওয়ামী লীগ প্রার্থী।

আগামী ১৫’মে নির্বাচনে মেয়র পদে পাঁচজন, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১শ’ ৮১ জন ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ৪৪জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
সূত্র : চ্যানেল আই

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ