প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

তীব্র আর্থিক সংকটে ঋণ দিতে পারছে না ইসলামী ব্যাংক

জান্নাতুল ফেরদৌসী : দেশের ৫৭ ব্যাংকের মধ্যে সবচেয়ে বড় ইসলামী ব্যাংক। দফায় দফায় রদবদল আর অস্থিরতার প্রভাব পড়েছে ব্যাংকটির আর্থিক সূচকে। আর্থিক সংকটে গ্রাহকদের ঋণ দিতে পারছে না ব্যাংকটি। টাকার অভাবে ঋণ দেয়ার কার্যক্রম ছোট করে এনেছে ব্যাংকটি। একসময় আমানতকারীরা ছুটতেন ইসলামী ব্যাংকের পেছনে, এখন আমানতের পেছনে ছুটছে ব্যাংকটি। ব্যাংকের এই বেহাল অবস্থায় শঙ্কিত গ্রাহকরা। এমন অবস্থা চলতে থাকলে ভবিষ্যতে পুরো আর্থিক খাতেই বিপর্যয় নেমে আসবে বলে আশঙ্কা বিশ্লেষকদের।

গত বছরের শুরুতেই ইসলামী ব্যাংকের মালিকানা বদল হয়েছিল। এর মাত্র ১৫ মাসেই আবারো আলোচনায় এই ব্যাংক। বিভিন্ন অভিযোগে গত সপ্তাহে পদত্যাগ করতে হয় ব্যাংকটির সাবেক চেয়ারম্যান আরাস্তু খানকে। পরিবর্তন আসে পর্ষদের অন্যান্য পদে।

ইসলামী ব্যাংকের পরিচালক শামিম আফজাল বলেন, অর্থনৈতিকভাবে দূর্বলতা প্রকাশ পাচ্ছিল। এখন এমনও অফার পাচ্ছি যাতে বিনিয়োগ কমিয়ে দেয়া হতে পারে। রোড ল্যাবেল পর্যন্ত ইসলামী ব্যাংকের যে বেইজ এবং মানুষের আমানত কে ৩৫ বছরে যথারীতি হেফাজতে রাখতে পেরেছেন।

এ বছরের শুরু থেকে এখন পর্যন্ত ব্যাংকটিতে আমানত এসেছে ১ হাজার ৪৬৬ কোটি টাকা আর ঋণ দেয়া হয়েছে ৪ হাজার ৩১৫ কোটি টাকা। অর্থাৎ ঋণ-আমানত অনুপাতও এখন সীমা ছাড়িয়েছে। ব্যাংক খাত সংশ্লিষ্টরা বলছে, ব্যাংকটির এমন নাজুক পরিস্থিতি প্রভাব ফেলতে পারে পুরো আর্থিক খাতে।

সানেম নির্বাহী পরিচালক সেলিম রায়হান বলেন, ব্যাংক পরিচালনায় মালিকপক্ষের অযাচিত হস্তক্ষেপেই ঘটছে এমন ঘটনা। একটা প্রতিষ্ঠানকে গড়ে তোলার জন্য যে ধরনের সহযোগিতা ও রাজনৈতিক ভূমিকার দরকার সে জায়গায় বড় ধরনের ঘাটতি রয়েছে। এ ধরনের অনাস্থা এবং অনিশ্চয়তা সৃষ্টি প্রভাব পড়বে। সূত্র: ইন্ডিপেনডেন্ট টিভি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত