প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নারী সাংবাদিককে ধর্ষণের পর হত্যায় ডেনিস উদ্ভাবকের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

আসিফুজ্জামান পৃথিল : এক নারী সাংবাদিককে ধর্ষণ এবং হত্যার অপরাধে উদ্ভাবক ও সাবমেরিন নির্মাতা পিটার ম্যাডসেনকে যাবজ্জীবন কারাদ- দিয়েছে কোপেনহেগেনের একটি আদালত। ম্যাডসেন ওই সাংবাদিককে নিজের তৈরী সাবমেরিনে দাওয়াত দিয়ে ধর্ষণ করে হত্যা করেন।

শুধু ধর্ষণ আর হত্যা করেই ক্ষান্ত থাকেননি ম্যাডনেস। ওয়ালের মৃতদেহকে টুকরো টুকরো করে সাগরে ভাসিয়ে দেন তিনি। তবে ম্যাডনেস এই ঘটনাকে দূর্ঘটনা বলে দাবী করেছেন। মোট ১১ দিন এই মামলার শুনানী চলে। এতে বের হয়ে এসেছে অভিযুক্ত ব্যক্তি নারীদের শিরচ্ছেদ এবং তাদের নির্যাতন করে বিকৃত যৌন উত্তেজনা বোধ করতেন। সরকার পক্ষের কৌশলীরা ধর্ষণ এবং হত্যা করে লাশ বিকৃত করার অভিযোগে ম্যাডসেনকে সর্বোচ্চ শাস্তি যাবজ্জীবন দেবার দাবী জানান। ডেনমার্কে যাবজ্জীবনে গড়ে ১৬ বছর জেল খাটতে হয়।

বিচারক অ্যানেট ব্রুক বলেছেন, তিনি এবং তাঁর দুই জুরি নিশ্চিত হয়েছেন ঘটনাটি অবশ্যই হত্যাকা- এবং ম্যাডসন এই ব্যাপারে কোন বিশ্বাসযোগ্য ব্যাখ্যা দিতে পারেননি। বিচারক রায় পড়ার সময় কাঠগড়ায় নিশ্চুপ দাঁড়িয়েছিলেন ম্যাডনেস।

তবে ম্যাডসেন এই হত্যার কথা অস্বীকার করেছেন। তার দাবী মতে ফ্রিল্যান্সার সাংবাদিক ওয়াল তার নির্মিত সাবমেরিনে আসেন তার সাক্ষাৎকার নিতে। হঠাৎ জাহাজটির বায়ূচাপ কমে যায় এবং এটি বিষাক্ত গ্যাসে ভরে ওঠে। এর ফলেই মারা যান ওয়াল। তবে তার এই বক্তব্য আদালতকে সন্তুষ্ট করতে পারেনি। প্রসঙ্গত, ডেনমার্কসহ বেশ কিছু স্ক্যা-েনেভিয়ান দেশে মৃত্যুদ-ের বিধান নেই। যাবজ্জীবনই এখানে সর্বোচ্চ শাস্তি। সাউথ চায়না মর্নিং পোষ্ট

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত