প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সম্পদশালী দেশগুলোকে মার্কিন সৈন্যদের নিরাপত্তা ব্যয়ের টাকা দিতে হবে: ট্রাম্প

লিহান লিমা: মধ্যপ্রাচ্যে মার্কিন সৈন্যদের অবস্থানের নিরাপত্তা ব্যয়ের জন্য সম্পদশালী দেশগুলোকে অবশ্যই টাকা দিতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। যুক্তরাষ্ট্রে সফররত ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁর সঙ্গে সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরো বলেন, ওই সব দেশগুলো যুক্তরাষ্ট্রের সমর্থন ছাড়া এক সপ্তাহও টিকতে পারবে না।
ট্রাম্প বলেন, ‘মধ্যপ্রাচ্যের কিছু সম্পদশালী দেশের বিশেষত্ব যুক্তরাষ্ট্র এবং কিছুটা ফ্রান্সের সমর্থনে। যুক্তরাষ্ট্রকে ছাড়া তারা টিকতে পারবে না। আমরা তাদের রক্ষা করছি। এখন তাদের নতুন পদক্ষেপ নিতে হবে এবং টাকা দিতে হবে’। নাম উল্লেখ না করে ট্রাম্প বলেন, ‘তাদের টাকা প্রদানের সঙ্গে সঙ্গে সৈন্যও মোতায়েন করতে হবে।’
এর আগে ট্রাম্প সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন, তিনি সিরিয়া থেকে খুব শীঘ্রই মার্কিন সৈন্য সরিয়ে নিবেন। কিন্তু মঙ্গলবার ট্রাম্প বলেন, ‘আমি সৈন্যদের দেশে ফিরিয়ে আনতে চেয়েছিলাম। কিন্তু ম্যাক্রোঁ এবং আমি আলোচনা করে দেখেছি আমরা ইরানকে খালি মাঠে ছেড়ে আসতে পারি না। সিরিয়ার মার্কিন উপস্থিতি খুবই গুরুত্বপূর্ণ, কারণ এই অঞ্চলে ইরানের প্রভাব বাড়তে দেয়া যাবে না।’
এদিকে ট্রাম্পের বক্তব্যের পরপরই সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবদেল আল জুবায়ের বলেন, ‘সিরিয়াতে যুক্তরাষ্ট্রের উপস্থিতির জন্য কাতারকে টাকা দেয়া উচিত এবং যুক্তরাষ্ট্র কাতারের নিরাপত্তা দিতে অস্বীকৃতি দেয়ার আগেই তাদের সেখানে সৈন্য পাঠানো উচিত।’ প্রসঙ্গত, কাতারে যুক্তরাষ্ট্রের ঘাঁটিতে ৯ হাজারেরও বেশি সৈন্য রয়েছে। জুবায়ের বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র সেনা প্রত্যাহার করে নিলে কাতার সরকার এক সপ্তাহের মধ্যে ভেঙ্গে পড়বে।’ এর আগে এপ্রিলে ট্রাম্প সিরিয়ায় সৈন্য উপস্থিতি বহাল রাখতে চাইলে সৌদির কাছে অর্থ দাবি করেন। তিনি বলেন, যদি সৌদি আরব মার্কিন সৈন্যদের সিরিয়া দেখতে চায় তবে তাদের অবশ্যই টাকা দিতে হবে। আল জাজিরা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত