Skip to main content

বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের মারধর ওয়ার্ড কাউন্সিলরকে হত্যার হুমকি

ইসমাঈল হুসাইন ইমু : সিদ্ধেশ্বরী বালক উচ্চ মাধ্যমিক স্কুল এন্ড কলেজকে সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের আখড়ায় পরিণত করেছে স্থানীয় সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ীরা। তাদের বাঁধা দিতে গিয়ে একের পর এক হামলা মারধর ও নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষিকারা। এমনকি বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির চেয়ারম্যান ও স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলরকে হত্যার হুমকি দেয়া হয়েছে। বুধবার সকালে বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ করেন বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষিকা, কর্মচারী ও অভিভাবকবৃন্দ। এসময় ম্যানেজিং কমিটির চেয়ারম্যান ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ১৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মুন্সি কামরুজ্জামান কাজল উপস্থিত ছিলেন। লিখিত বক্তব্যে প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ শেখ ফরিদুজ্জামান বলেন, দীর্ঘদিন ধরে স্থানীয় বাসিন্দা গোলাম মোস্তফা শিমুল, দেওয়ান আলীমউদ্দিন শিশির ও মাসুদ রানাসহ তার সহযোগীরা শিক্ষকদের অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে বিদ্যালয়ের মাঠ ও ক্লাসরুম গুলো টর্চারসেল হিসাবে ব্যবহার করছে। তাদের বিরুদ্ধে শিক্ষকরা কোন কথা বলতে পারেন না। গত ২২ এপ্রিল দুপুরে শিমুলসহ তার সহযোগিরা বিদ্যালয়ে গিয়ে শিক্ষক আমিনুল ইসলাম, মোশাররফ হোসেন ও রুহুল আমিনকে বেধড়ক মারধর করে। এই ঘটনায় অধ্যক্ষ বাদী হয়ে রমনা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। শিক্ষকরা বলেন, সন্ধ্যার পর নারী ও মাদকসহ বাইরের লোকদের নিয়ে ক্লাস রুমে প্রবেশ করে তারা। এছাড়া চোরাই গাড়ি, মটরসাইকেল রাখার নিরাপদ স্থান হিসাবে ব্যবহার করা হচ্ছে বিদ্যালয়ের মাঠ। ম্যানেজিং কমিটির চেয়ারম্যান কাউন্সিলর কাজল বলেন, এই ঘটনায় তিনি প্রতিবাদ করায় গত ২৩ এপ্রিল সন্ত্রাসীরা তাকে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। এ ঘটনায় তিনি রমনা থানায় একটি জিডি করেছেন।

অন্যান্য সংবাদ