প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

যুক্তরাষ্ট্রে ম্যাক্রোঁ: ট্রাম্পের সঙ্গে ইরানসহ বিভিন্ন ইস্যুতে আলোচনা

লিহান লিমা: ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ ও ফার্স্ট লেডি ব্রিজিত ম্যাক্রোঁকে মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিকভাবে হোয়াইট হাউসে স্বাগত জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প। এই সময় উপস্থিত ছিলেন ট্রাম্পের মন্ত্রীপরিষদের সদস্য, ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স, চিফ অব স্টাফ জন কেলি।

হোয়াইট হাউসে ব্যক্তিগত বৈঠকে বসার আগে ট্রাম্প-ম্যাক্রোঁ সংবাদ সম্মেলনে দ্বিপক্ষীয় বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে আলোচনা করেন। এই সময় ট্রাম্প সিরিয়া ইস্যুতে পাশে থাকার জন্য ম্যাক্রোঁকে ধন্যবাদ জানান। ট্রাম্প বলেন, সিরিয়া ইস্যুতে আমরা ব্রিটিশ ও ফ্রান্সের বন্ধুদের পাশে পেয়েছি। আমি ব্যক্তিগতভাবে ম্যাক্রোঁকে ধন্যবাদ জানাই। দুই নেতা কানাডায় গাড়ি হামলায় নিহতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান এবং সাবেক প্রেসিডেন্ট বুশের সুস্থতা কামনা করেন। ম্যাক্রোঁ বলেন, ট্রাম্প এবং আমি কখনোই জলবায়ু ইস্যুতে একমত হইনি। এটি পারিবারিক অর্ন্তদ্বন্দ্বের মত। তবে আমাদের সন্তানদের স্বার্থে অবশ্যই এই ইস্যুতে পদক্ষেপ নিতে হবে। এই সময় ম্যাক্রোঁ ‘উগ্র জাতীয়তাবাদ’ সম্পর্কে সতর্ক করেন।

এরপর দুই নেতা হোয়াইট হাউসে ব্যক্তিগত বৈঠকে মিলিত হন। এই সময় ব্রিজিতে ও মেলানিয়া ন্যাশনাল আর্ট গ্যালারি পরিদর্শনে যান। দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে ট্রাম্প বলেন, আমাদের দু’জনের মধ্যে বিশেষ সম্পর্ক আছে। এটি কোন ভুয়া খবর নয়। সত্যি। ম্যাক্রোঁ স্বয়ংসম্পূর্ণ এবং অসাধারণ। আমরা খুব ভাল বন্ধু। এই সময় ট্রাম্প ইরান চুক্তিকে ‘ভয়ঙ্কর এবং অপূর্ণ’ বলে মন্তব্য করেন । বলেন, মানুষ ইরান চুক্তি নিয়ে আমার মত জানতে চায়। এ রকম অপরিণত চুক্তি আমি আগে আর কখনো দেখি নি। ’ অন্যদিকে ম্যাক্রোঁ এই চুক্তিকে কৌশলগত আঞ্চলিক ক্ষেত্রে ‘গুরুত্বপূর্ণ’ বলে মন্তব্য করেন। কিন্তু ম্যাক্রোঁ বলেন, ‘আপনি যেখানেই যান ইরান তাড়া করবে, রাশিয়া আরো বেশি করে সংযুক্ত হবে।’

বৈঠক শেষে দুই নেতা সংবাদ সম্মেলন করেন। এরপর অতিথিদের সম্মানে হোয়াইট হাউসে রাষ্ট্রিয় নৈশভোজের আয়োজন করা হবে। সিএনএন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত