প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শুধু ফাইনাল নয়, প্রতিশোধের মিশনে রোমা-লিভারপুল

স্পোর্টস ডেস্ক : সব জল্পনা-কল্পনা উপেক্ষা করে, বিশ্বের বড় বড় ক্লাবকে চমকে দিয়ে ইউরোপ সেরা হওয়ার দৌড়ে সেরা চারে জায়গা করে নিয়েছে ইতালিয়ান ক্লাব রোমা এবং ইংলিশ ক্লাব লিভারপুল। এই দুই দল উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমিফাইনালের প্রথম ম্যাচে আজ নিজেদের মোকাবেলা করবে যেটাকে শুধু ফাইনালের লড়াই বলা হচ্ছে না, বলা হচ্ছে প্রতিশোধের ম্যাচও। আজ লিভারপুলের মাঠ অ্যানফিল্ডে সেমিফাইনালের প্রথম লেগে রাত পোনে একটা মুখোমুখি হবে দুই দল।

লিভারপুল-রোমার এ লড়াই ফিরিয়ে আনছে ১৯৮৪ সালের পুরনো এক স্মৃতিকে। তৎকালীন ইউরোপিয়ান কাপ ফাইনালে মুখোমুখি হয়েছিল এই দুই প্রতিপক্ষ। ১-১ গোলে ড্র থাকা ম্যাচটি গড়ায় পেনাল্টি শূটআউটে। যেখানে ৪-২ গোলে রোমাকে হারিয়ে শিরোপা উৎসবে মেতেছিল লিভারপুল। ৩৪ বছর পর আবারো ফাইনালে যাওয়ার মিশনে ‘অল রেড’দের সামনে রোমা। এবার নিশ্চয়ই সেই পুরনো প্রতিপক্ষের কাছে সুযোগ হাতছাড়া করতে চাইবে না দলটি। প্রতিশোধ নিয়েই ফাইনালে যেতে চাইবে তারা।

অন্যদিকে পাঁচবার ইউরোপ সেরা হওয়া লিভারপুলের সামনে ১১ বছর পর ফাইনালে ওঠার হাতছানি। সবশেষ ২০০৬-০৭ মৌসুমে ফাইনালে এসি মিলানের বিপক্ষে হেরেছিল অ্যানফিল্ডের দলটি। এবার ইয়ুর্গেন ক্লপের নেতৃত্বে থাকা দলটি পূরণ করতে চাইবে নিজেদের ‘হেক্সা মিশন’। সেমিফাইনাল খেলতে আসা চার দলের মধ্যে একমাত্র লিভারপুল এখন পর্যন্ত অপরাজিত। গ্রুপ পর্বে চেলসি ও অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদের মতো দলকে পেছনে ফেলে চ্যাম্পিয়ন হয়ে নকআউট পর্বে উঠেছিল তারা। সেখান শাখতার দোনেস্ক পেছনে ফেলে কোয়ার্টারে প্রতিপক্ষ হিসেবে পায় বার্সেলোনাকে। বার্সার কাছে ন্যু ক্যাম্পে ৪-১ গোলে হেরে বিদায়ের ক্ষণ গুনছিল ‘ইয়েলো রেডস’খ্যাত দলটি। কিন্তু পরের লেগে অবিশ্বাস্য ফুটবল খেলে বার্সাকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দিয়ে সেমির টিকিট পায় তারা।

এ ম্যাচে রোমার জন্য সবচেয়ে বড় আতঙ্কের নাম মোহাম্মদ সালাহ। অথচ গত মৌসুমে রোমার জার্সিতেই খেলেছিলেন এ মিসরীয় জাদুকর। দলবদলের পর লিভারপুলের জার্সিতে মুহূর্তেই যেন বদলে গেছে সবকিছু। মৌসুমে অপ্রতিরোধ্য সালাহ ভেঙে দিয়েছেন বেশকিছু রেকর্ড। এরই মধ্যে জিতে নিয়েছে প্রফেশনাল ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের (পিএফএ) দেয়া ইংল্যান্ডের বর্ষসেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কারও।

এদিকে রোমাকে সেমিতে তোলার পেছনে দারুণ অবদান এডেন জেকোর। এ মৌসুমে রোমার জার্সিতে দারুণ নৈপুণ্য দেখিয়েছেন এই বসনিয়ান জিনিয়াস। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ছয় গোল করার পাশাপাশি অ্যাসিস্ট করেছেন আরো দুই গোলে। আজকের ম্যাচেও রোমার অন্যতম ভরসার নাম জেকো। এর আগেও লিভারপুলের বিপক্ষে খেলার অভিজ্ঞতা আছে তার। এ পর্যন্ত ১১ ম্যাচে তার গোল ৩টি। এখন লিভারপুলের দুর্বলতার সুযোগ নিয়ে আরো একবার জ্বলে উঠে রোমাকে ফাইনালে তুলতে চাইবেন জেকো।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ