প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

এশা হলের ছাত্রীদেরকে আসলেই নির্যাতন করতো

কোটার আন্দোলন কোন দলের নয়। এই আন্দোলনটা কোন রাজনৈতিক দলেরও নয়, রাজনৈতিক আন্দোলনও নয় । আন্দোলনটা হচ্ছে সাধারণ ছাত্রদের এবং এটা একটা ন্যায্য দাবী ছিলো। যেটা আমি মনে করি জনগণের দাবী, জাতীয় দাবী। কোটা সংস্কার নিয়ে যেই আন্দোলনটা, সেটা অনেক আগে থেকেই হয়ে আসছিলো। আর এই আন্দোলনটা মনে হয় অনেকটা সফল হয়েছে। কোটা সংস্কার আন্দোলন নিয়ে যারা রাজনীতি করেছে, এটা আসলেই ন্যক্কারজনক । যারা এটা নিয়ে রাজনীতি করছে বা করতে চাচ্ছে এবং রাজনীতির খেলাটা খেলতে চাচ্ছে, এটা আসলেই নিন্দনীয় একটা ব্যাপার। ঢাকা ভার্সিটিতে যেটা হচ্ছে বা হয়েছে এটাও খুব নিন্দনীয় ।

এখানে রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ না তারা, নিজেরা নিজেরা আন্দোলন নিয়ে একটা দ¦ন্ধ তৈরি করে ফেলেছে। এটা আসলে আমাদের কাম্য নয়। ঢাকা ভার্সিটিতে অভিভাবকদের ডেকে যাদেরকে সুফিয়া কামাল হল থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে, এটাও আসলে নিন্দনীয়। যেহেতু এখানে একটা ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে, যে এশা মোরশেদার রগ কাটার কারণে তাকে অনেক হেনস্তা করা হয়েছে। আসলে রগ কাটার ব্যাপারটা একটা গুজব ছিলো। এশা আমার রগ কাটে নি এটা কিন্তু মোরশেদা কিøয়ার করেছে। মোরশেদা গণমাধ্যম কর্মীদেরকে বলেছে যে, আমার রগ কাটা হয়নি। এটা ছোট একটা ইন্টারভিউ ছিলো। এশা আসলেই হলে ছাত্রীদের নির্যাতন করে, এটা সত্য কথা। সাধারণ ছাত্রীদের নির্যাতন করায় আমরা খুবই ক্ষুদ্ধ ছিলাম। তাই ওর দরজায় লাথি দিয়েছিলাম।

যে কারণে আমার পা কেটে যায় রগ কাটে নি। সর্বশেষ কথা হচ্ছে, যেহেতু শুধুমাত্র এশার যেই গুজব ব্যাপারটা মিথ্যা ছিলো। সেই কারণে এশার ছাত্রত্ব বাতিল হয়েছিল। এগুলো যখন প্রত্যাহার করা হলো, ভার্সিটির পক্ষ থেকে এবং ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে, যখন বহিস্কার আদেশ প্রত্যাহার করা হলো, সে ক্ষেত্রে এটা ভালো দিক ছিলো। যেহেতু গুজবটা মিথ্যা প্রমাণিত করা হয়েছে, তাহলে আবার যারা আন্দোলনের পক্ষে ছিলো, আন্দোলন করেছে, আন্দোলনকারী ছাত্রীদের কেন হল থেকে বের করে দেয়া হলো? এই জিনিসটা অবশ্যই অবশ্যই ঠিক হয়নি। এখানে যদি সত্যিই সঠিক বিচার করা হতো বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষ, প্রশাসন এবং ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে তারা যদি সঠিক ন্যায্য বিচার করতো, তাহলে অবশ্যই তাদের গভীর রাতে বের করে দিতো না। এটা সঠিক বিচার হয়নি বলে আমি মনে করি।

পরিচিতি : ছাত্র, স্টেট ইউনিভার্সিটি/মতামত গ্রহণ : নৌশিন আহম্মেদ মনিরা/ সম্পাদনা : মো.এনামুল হক এনা

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত