প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

গাড়িতে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীকে যৌন হয়রানি : চালকসহ গ্রেফতার ৩

সুশান্ত সাহা  : রাজধানীর উত্তরা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রীকে যৌন হয়রানি করার ঘটনায় গণপরিবহন তুরাগের চালকসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় রাজধানীর সায়েদাবাদ থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলো, গ্রেট তুরাগ পরিবহনের চালক রুমান (২৭), সুপারভাইজার মনির (২৭) ও হেলপার নয়ন (২৯)।

গুলশান থানার ওসি আবু বকর সিদ্দিক জানান, সায়েদাবাদ থেকে বাসসহ তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পরে মামলার বাদী তাদের শনাক্ত করেন। এর আগে সোমবার বিকালে গ্রেট তুরাগ পরিবহনের একটি বাসে বিশ্ববিদ্যালয়টির ছাত্রীকে যৌন হয়রানি করে চালক, সুপারভাইজার ও হেলপার। এ ঘটনায় ওই ছাত্রী বাদী হয়ে গুলশান থানায় একটি মামলা করেন।

উল্লেখ্য, গত ২১ এপ্রিল দুপুর ১টার দিকে উত্তরা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রী বাড্ডা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ে আসার পথে তুরাগ বাসে যৌন হয়রানির শিকার হন। পথে যাত্রীরা নেমে যেতে থাকলে বাসটি ফাঁকা হয়ে যেতে থাকে। এতে ভয় পেয়ে শেষ কয়েকজন যাত্রীর সঙ্গে তিনিও বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার গেটে বাস থেকে নামতে যান। তখন হেলপার-কন্ডাক্টর হাত ধরে তাকে আটকানোর চেষ্টা করে। প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে তিনি চলন্ত বাস থেকে লাফিয়ে নেমে নিজেকে রক্ষা করেন। এ ঘটনায় গত রোববার বিকাল থেকে সোমবার শিক্ষার্থীকে যৌন হয়রানির চেষ্টার ঘটনায় তুরাগ পরিবহনের প্রায় ৪০টি বাস উত্তরা ইউনিভার্সিটির ক্যাম্পাসে আটক করে শিক্ষার্থীরা। পরে সোমবার বিকেলে উত্তরা ইউনিভার্সিটির প্রশাসনিক ভবনের সামনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী পারভেজ হোসাইন বলেন, আমাদের সহপাঠীকে যৌন হয়রানির চেষ্টায় জড়িত তুরাগ পরিবহনের বাসটির চালকসহ দুই হেল্পারকে দ্রুত গ্রেফতার করতে হবে। যে পর্যন্ত ওই তিনজনকে আটক না করা হবে সেই পর্যন্ত তুরাগ পরিবহনের আটক ৪০ বাসের একটিও ছাড়া হবে না।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত