প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

চীন সীমান্তে আরো ৭টি বিমানঘাটি নির্মানের ঘোষণা ভারতের

আসিফুজ্জামান পৃথিল : ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী নির্মলা সীতারামন জানিয়েছে যে দেশের বিমানবাহিনীকে আধুনিকায়নের অংশ হিসেবে বর্তমান আটটি অ্যাডভান্সড ল্যান্ডিং গ্রাউন্ডের (এএলজি) পাশাপাশি চীনের সঙ্গে সীমান্ত এলাকায় আরো সাতটি এয়ারফিল্ড নির্মাণ করা হবে।
বিমানবাহিনীর ‘গগনশক্তি’ মহড়া দেখার পর বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এক ব্রিফিংয়ে তিনি এ কথা জানান।
সীতারামন বলেন, ‘আধুনিকায়নের অংশ হিসেবে অরুনাচল প্রদেশে এএলজিগুলো আরো উন্নত করা হবে। সবগুলো উন্নত করার সংখ্যাও বাড়াবো।’
বৃহস্পতিবার ভারতীয় বিমান বাহিনীর একটি সুখয় সু-৩০ ও সি-১৭ গ্লোবমাস্টার সম্প্রতি সক্রিয় হওয়া পসিঘাট এএলজি’তে অবতরণ করে।
বিমান বাহিনী প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল বীরেন্দ্রর সিং ধনোয়া বলেন, ‘সম্প্রসারণ পরিকল্পনার অংশ হিসেবে অরুনাচল প্রদেশে মিলিটারি অপারেশনের জন্য আরো সাতটি এএলজি নির্মাণ করা হবে। ভারতের পূর্বকোণের এই রাজ্যে বর্তমানে আটটি এএলজি রয়েছে।
গত মাসে বিমানবাহিনীর ভারি পরিবহন বিমান সি-১৭ গ্লোবমাস্টার তুতিং এএলজি-তে অবতরণ করে। চীনের সঙ্গে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা (এলএসি) থেকে এই এএলজি’র দূরত্ব মাত্র কয়েক মাইল।
২০০৯ সালে ভারত চীনের সঙ্গে সীমান্ত এলাকায় আটটি এএলজি নির্মাণের কাজ শুরু করে। অরুনাচল প্রদেশের আটটি এএলজি’র মধ্যে ছয়টির কাজ শেষ হয়েছে। অন্যদিকে তাওয়াংয়ে একটি কাজ প্রায় শেষের পথে। বিজয়নগরের কাজও শিগগিরই শুরু হবে। বেশিরভাগ এএলজিতে সুখয় ও গ্লোবমাস্টার অবতরণ করিয়েছে ভারতীয় বিমান বাহিনী। – সাউথ এশিয়ান মনিটর

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত