প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ক্যামেরা দেখলেই মুখখোলা বন্ধ করুন: দলের নেতাদের মোদী

সান্দ্রা নন্দিনী: ভারতে সাম্প্রতিক সময়ে ঘটে যাওয়া নানা ঘটনায়, মন্ত্রী-সাংসদ-বিধায়কদের নানা বেফাঁস মন্তব্যে বিব্রতকর অবস্থার মুখে পড়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। কখনও সন্ত্রাস, কখনও ধর্ষণের ঘটনা, কখনও আবার মহাভারত ডারউইনের তত্ত্ব, গত ছ’মাসে মোদী সরকারের বিভিন্ন প্রতিনিধিদের মুখনিঃসৃত বাক্য একের পর এক বিতর্কের জন্ম দিয়েছে।

এর প্রেক্ষিতে, সোমবার নিজের অ্যাপ (নরেন্দ্র মোদী অ্যাপ)এর মাধ্যমে সারাদেশের বিজেপি নেতাদের আবার সতর্ক করলেন মোদী। তিনি বলেন, ওইসব দায়িত্বজ্ঞানহীন মন্তব্যে তাদের নিজেদেরসহ বিজেপির ভাবমূর্তিও নষ্ট হচ্ছে।

একঘণ্টার বার্তায় দলের নেতাদের মোদী বলেন, ‘সংবাদমাধ্যম বাড়াবাড়ি করছে বলে সবসময় দোষ দিয়ে লাভ নেই। আমরা ভুল করছি আর সংবাদমাধ্যমের হাতে ‘মশলা’ তুলে দিচ্ছি। ক্যামেরা দেখলেই ঝাঁপিয়ে পড়ে কথা বলা বন্ধ করুন। প্রকৃত তথ্য না জেনে করা সেই সব মন্তব্যকে ব্যঙ্গ করছে সংবাদমাধ্যম। এতে সংবাদমাধ্যমের দোষ নেই।’ এরআগে, গতবছর এপ্রিলে দলীয় সম্মেলনে মোদী দলের নেতাদের বলেছিলেন, ‘চুপ থাকা অভ্যাস করুন।’

উল্লেখ্য, ভারতের মন্ত্রিসভার প্রতিমন্ত্রী সন্তোষ গাঙ্গোয়ার সম্প্রতি মন্তব্য করেছেন, ‘ধর্ষণের ঘটনা দুর্ভাগ্যজনক। কখনও কখনও থামানো যায় না। এটা নিয়ে এত হইচইয়ের কী আছে?’

এছাড়া, গত সপ্তাহে ত্রিপুরার সদ্য নির্বাচিত মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব বলেছিলেন, মহাভারতের সময় থেকেই ইন্টারনেট এবং কৃত্রিম উপগ্রহ মারফত সংযোগ ছিল! আবার, জানুয়ারিতে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সত্যপাল সিংহ বলেন, ‘ডারউইনের তত্ত্বের বিজ্ঞানসম্মত ভিত্তি নেই। তাই পাঠ্যবই এই তত্ত্ব সরিয়ে দেওয়া উচিত!’ ইন্ডিয়া টাইমস

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত