প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দু-একটা ধর্ষণে হইচই করার কিছু নেই: বিজেপি মন্ত্রী

ডেস্ক রিপোর্ট : অধিকৃত কাশ্মীরে আট বছরের মুসলিম শিশু আসিফাসহ দুই শিশুকে গণধর্ষণ ও হত্যার ঘটনায় ক্ষোভে ফুঁসেছে গোটা ভারত। তবে শুরু থেকেই ধর্ষকদের পক্ষ নিয়েছে ক্ষমতাসীন হিন্দুত্ববাদী দল-বিজেপি।
এবার ধর্ষণের পক্ষে অনেকটা সাফাই গাইলেন নরেন্দ্র মোদি সরকারের অর্থ প্রতিমন্ত্রী সন্তোষ গাঙ্গোয়ার।

রোববার দিল্লিতে সাংবাদিকরা কাঠুয়া-উন্নাওয়ের ধর্ষণের ঘটনা প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এমন ঘটনা দুর্ভাগ্যজনক, কিন্তু কখনো কখনো এসব বন্ধ করা যায় না। সরকার সব জায়গায় সক্রিয়, তদন্তও চলছে।

তবে তিনি বলেন, ‘এত বড় দেশে একটা-দুটা এমন ঘটনা ঘটলে তা নিয়ে এত হইচই করার কিছু নেই।’
আনন্দবাজার জানায়, সন্তোষ গাঙ্গোয়ার এমন মন্তব্যের একদিন আগে তার সরকারের মন্ত্রিসভায় শিশু যৌন নির্যাতন প্রতিরোধ আইন-২০১২ (পকসো) আরো কঠোর করার সিদ্ধান্ত নেয়। ১২ বছর পর্যন্ত শিশুদের ধর্ষণে মৃত্যুদণ্ডের অর্ডিন্যান্স পাস করে। রোববার তাতে স্বাক্ষরও করেন রাষ্ট্রপতি।

উল্লেখ্য, কয়েক দিন আগে ভারত অধিকৃত কাশ্মীরের আট বছরের ছোট্ট শিশু আসিফা বানুকে অপহরণ করে মন্দিরে আটকে রাখা হয়। সেখানেই মাদক দিয়ে অজ্ঞান করে তাকে গণধর্ষণ করে সাবেক এক সরকারী কর্মকর্তা ও তার সহযোগীরা। এখানেই থেমে থাকেনি পাষণ্ডরা। পরে তাকে হত্যা করে।

ধর্ষকরা জানায়, ভীতি ছড়ানোর মাধ্যমে আসিফার নৃ-গোষ্ঠীকে অধিকৃত কাশ্মীরের কাঠুয়া এলাকাছাড়া করতে তাকে গণধর্ষণ ও হত্যা করা হয়। ঘটনার পর আসিফার গ্রাম ছেড়ে চলে যায় লোকজন। অন্যদিকে ধর্ষকদের পক্ষে মিছিল সমাবেশ করে বিজেপি নেতাকর্মীরা।

আসিফাকে গণধর্ষণ করে হত্যার খবরের রেশ কাটতে না কাটতেই সোমবার ভারতের উত্তরপ্রদেশে উন্নাওয়ে আবারও আট বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়। শিশুটির লাশের পাশেই পড়ে ছিল মাতাল দর্শক। সূত্র :পরিবর্তন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ