প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

খাগড়াছড়িতে আজ সকাল-সন্ধ্যা হরতাল

এম দুলাল আহাম্মেদ,গুইমারা (খাগড়াছড়ি) প্রতিনিধি :  সোমবার খাগড়াছড়িতে সকাল-সন্ধ্যা হরতালের ডাক দিয়েছে পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদ। খাগড়াছড়ির মাইসছড়িতে কাঠ কিনতে গিয়ে ট্রাক চালক-ব্যবসায়ীসহ অপহৃত ৩ বাঙ্গালীকে উদ্ধার করতে কয়েক দফা আল্টিমেটাম দেয়ার পরও উদ্ধারে প্রশাসন ব্যর্থ হওয়ায় এ হরতালের ডাক দেয় সংগঠনটি। রোববার রাতে হরতাল আহ্বানের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পার্বত্য বাঙালী ছাত্র পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আব্দুল মজিদ। হরতালের সমর্থনে খাগড়াছড়ি সদর ও মাটিরাঙ্গাতে বিক্ষোভ মিছিল করে তারা।

শুক্রবার খাগড়াছড়ি প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন থেকে হরতাল কর্মসূচী ঘোষণা করেন বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদের খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সভাপতি লোকমান হোসেন। সংবাদ সম্মেলন থেকে অপহৃতদের অক্ষত ও জীবিত উদ্ধারের প্রশাসনকে রবিবার পর্যন্ত ২৪ ঘন্টার আল্টিমেটাম দেয়া হয়। এ সময় অপহৃত ট্রাকচালক মো. বাহার মিয়ার স্ত্রী তহুরা বেগম, কাঠ বব্যবসায়ী মো. সালাহ উদ্দিনের ছোট ভাই মো. নুর উদ্দিন, মো. মহরম আলীর ভগ্নিপতি মো. দোলোয়ার হোসেন, পিবিসিপির কেন্দ্রীয় কমিটির সাংস্কৃতিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম, মাটিরাঙ্গা উপজেলা পিবিসিপির সভাপতি রবিউল হোসেন, মাটিরাঙ্গা পৌর পিবিসিপির সভাপতি জালাল আহম্মদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আল্টিমেটাম শেষ হওয়ার পরও অপহৃতরা উদ্ধার না হওয়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে তাদের পরিবার-পরিজনরা। অপহরণকারীদের দাবিকৃত মুক্তিপণ দেওয়ার পরও অপহৃতদের মুক্তি দেওয়া হয়নি এমন অভিযোগ করে আসছে তাদের পরিবার। জীবিত ও অক্ষতাবস্থায় উদ্ধারে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সহায়তা চেয়ে অনুরোধও জানানো হয় পরিবারের পক্ষ থেকে।

এদিকে অপহরণের ৬দিন পার হলেও মানবাধিকার কমিশন, সুশীল সমাজ কেন পাহাড়ে ৩ বাঙ্গালী অপহরনের ঘটনায় নীরব ভূমিকা পালন করছে? কেন প্রশাসনের সফলতা নেই ? এসব প্রশ্ন তুলে ক্ষোভ প্রকাশ করেন বাঙ্গালী সংগঠনের নেতারা।

প্রসঙ্গত, গত ১৬ এপ্রিল মহালছড়ি উপজেলার মাইসছড়ি এলাকায় কাঠ কিনতে গিয়ে নিখোঁজ হন মাটিরাঙ্গা উপজেলার ৩ বাঙ্গালী । নিখোঁজের ৬ দিন অতিবাহিত হলেও এখনও পর্যন্ত তাদের কোন সন্ধান মেলেনি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত