প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মেধাহীনদের কোটা সুবিধা দেওয়া হতো না : নৌমন্ত্রী

নৌ-পরিবহন মন্ত্রী শাহজাহান খান বলেছেন, কোটার মাধ্যমে মুক্তিযোদ্ধার সন্তান প্রতিবন্ধী ও জেলা ভিক্তিতে যে ভাবে চাকরী দেওয়া হতো তাদের কোটার মধ্যে থেকে মেধাবীদের বেছে বেছে চাকরীর সুযোগ দেওয়া হতো। কোটা সুবিধা দিয়ে কোন প্রকার মেধাহীনদের চাকরীতে সুযোগ করে দেওয়া হয়নি বা দেওয়া হতো না।

রোববার দুপুরে ঢাকা রিপোর্টাস ইউনিটি (ডিঅারইউ) মুক্তিযোদ্ধা সংসদ অায়োজিত অালোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী শাহজাহান খান বলেন, যারা কোটা অান্দোলনের নামে ভিসির বাসায় ভাংচুর করেছে দেশে অস্থিরতা করেছে তাদের অন্য মতলব ছিল তারা বিএনপি জামায়াতের মতাদর্শের লোক তারা সরকার পতন করতে চেয়েছে। এজন্য শেখ হাসিনা একেবারে কোটা সুবিধা বাতিল করে দিয়েছেন।

মুক্তিযোদ্ধের চেতনা বিরোধী শক্তি তরুণ সমাজ কখনো মেধাবী হতে পারে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, বিএনপি জামাতের মতাদর্শে যেসব তরুণ তাদের এদেশে কোন চাকরী হবে না। রাজাকারের বাচ্চার চাকরী হবে না। অামরা কোন রাজাকারের বাচ্চার দায়িত্ব নিতে পারবো না, চাকরী দিতে পারবো না।

সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ অান্দোলনের নেতা রাশেদ খানের একাত্তর টিভির টকশোতে অংশগ্রহণ করে কথা বলা প্রসঙ্গ টেনে শাহজাহান খান বলেন, তারা কী করতে চায়, কাদের ইঙ্গিতে কোটা সংস্কার অান্দোলন করতে মাঠে নেমেছে তা পরিস্কার হয়েছে। তা অাপনারা দেখেছেন দেশবাসী দেখেছে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশে রাজাকারদের কোন প্রকার স্কুল, কলেজ, হাসপাতাল, ব্যাংক, বীমা কিছুই করতে দেওয়া হবে না। যা অাছে সরকার তাদের যত প্রতিষ্ঠান তা নিয়ন্ত্রন করে নিবে কারণ এসব প্রতিষ্ঠানে অায়ের টাকা দেশীয় জঙ্গিবাদের পিছনে খরচ করা হয়।

শাহজাহান খান বলেন, অামরা মুক্তিযোদ্ধ করে দেশ স্বাধীন করেছি, অামরা অাওয়ামী লীগ জানি কী করতে হবে। দেশবাসীর কী লাগবে। অামরা এখনও শেষ হয়ে যাইনি। দেশবাসী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওপর অাস্থা রাখুন তিনি নিরাশ করবেন না।

এসময় তিনি বিএনপির সমালোচনা করে বলেন, নিজেদের মুরদ নাই, তাই অন্যের ঘাড়ে ভর করে অান্দোলন করে সরকার পতন করতে চায়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত