প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছেন ট্রাফিক ইন্সপেক্টর দেলোয়ার

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উল্টো পথে চলা বাস থামাতে গিয়ে বাসের চাকায় পিষ্ট হওয়া ট্রাফিক ইন্সপেক্টর দেলোয়ার হোসেনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে। তিনি বর্তমানে হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছেন।

তাঁর এই ভয়াবহ অবস্থা দেখে কান্না থামছে না পরিবারের সদস্যদের। তারা কী করবে, কোথায় নিয়ে যাবে বুঝে উঠতে পারছে না। দেলোয়ারের পরিবারের একজন সদস্য  জানান, দেলোয়ারের শারীরিক অবস্থা বর্তমানে খুবই ক্রিটিক্যাল পর্যায়ে। তাঁকে দ্রুত বিদেশে পাঠিয়ে চিকিৎসা দেওয়া প্রয়োজন। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে দাবি জানাচ্ছি, তাঁকে বিদেশে নিয়ে চিকিৎসা দেওয়া হোক।

এর আগে গত সোমবার সকাল ৭টা থেকে রাজধানীর পলাশী এলাকায় দায়িত্ব পালন শুরু করছিলেন। সকাল সাড়ে ৮টার দিকে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বহন করা বাস (ঢাকা মেট্রো-চ-০৮-০০৫৩) নীলক্ষেতের দিক থেকে উল্টো দিকের রাস্তায় পলাশী হয়ে সচিবালয়ের দিকে যাচ্ছিল। এরপর বাসটিকে পুলিশ থামানোর পর উল্টো তর্কে জড়ায় মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারী, বাসচালক ও হেলপার। একপর্যায়ে চালক বেপরোয়া হয়ে বাসটি চালাতে থাকে। এতে ইন্সপেক্টর দেলোয়ারের বাঁ পা বাসের চাকার নিচে পিষ্ট হয়। এরপর রক্তাক্ত অবস্থায় তাঁকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। বর্তমানে তাকে স্কয়ার হাসপতালের আইসিইউয়ে রাখা হয়েছে।

এ ঘটনায় গত ১৭ এপ্রিল শাহবাগ থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়। তবে গতকাল শনিবার পর্যন্তও সেই বেপরোয়া বাসচালককে আটক করতে পারেনি পুলিশ।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে শাহবাগ থানার ওসি আবুল হাসান বলেন, চালককে এখনো গ্রেপ্তার করা যায়নি। তাকে গ্রেপ্তারের জন্য খোঁজা হচ্ছে।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, ‘ওই বাসচালক গুরুতর অপরাধ করেছে। অবশ্যই তাকে আইনের আওতায় আনা হবে। আর দেলোয়ারকে চিকিৎসায় যা যা খরচ প্রয়োজন হবে পুলিশের পক্ষ থেকে সব দেওয়া হবে। প্রয়োজনে তাঁকে বিদেশেও পাঠানো হবে।’ সূত্র: কালের কণ্ঠ

 

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত