প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘হিগুয়েইন নিজেকে কলুষিত করেছেন’

২০১৪ বিশ্বকাপে শিরোপার খুব কাছে চলে গিয়েছিল আর্জেন্টিনা। ফাইনালে অবশ্য জার্মানির বিপক্ষে ০-১ গোলে হেরে রানার্সআপ হয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় লিওনেল মেসিদের। আরেকটা বিশ্বকাপ যখন সামনে তখন আর্জেন্টাইন ভক্তদের মনে সেই ম্যাচ আসবেই। আসলে ওই দুঃখ তো চিরন্তন দুঃখ হয়ে আছে আর্জেন্টাইনদের মনে। বিশ্বকাপ ফাইনালের সেই ম্যাচে হারের জন্য অনেকেই গঞ্জালো হিগুয়েইনকে কাঠগড়ায় তোলেন। কি সহজ সুযোগই না হাতছাড়া করেছেন এই ফরোয়ার্ড। ইদানিং তো তাকে গোল মিসের মাস্টারও বলে থাকেন সমালোচকরা। আর্জেন্টিনার সাবেক কোচ আলফিও বাসিলে ২০১৪ বিশ্বকাপের ফাইনাল প্রসঙ্গ এনে বলেছেন, হিগুয়েইন কালি মেখেছে নিজের নামে।

‘জেনারেশন লিও’ নামের একটি আত্মজীবনীমূলক গ্রন্থ লিখেছেন আলফিও বাসিলে। যেখানে হিগুয়েইন উঠে এসেছেন শুধু নেতিবাচকভাবে। বাসিলের ভাষায়, ‘সব খেলোয়াড়ের মধ্যে মানুষ শুধু হিগুয়েইনকেই দোষী মনে করে। তারা কেউ তাকে বিশ্বকাপের স্কোয়াডে চায় না, কারণ যখন তাদের বিশ্বকাপের কথা মনে আসে, তখন তারা দেখে, শুরুতেই তার (হিগুয়েইন) ওই মিসটার জন্য চরম মূল্য দিতে হয়েছে।’
পোস্টের সামনে গোলরক্ষককে সেদিন একা পেয়েও গোল করতে পারেননি হিগুয়েইন। বাসিলে অমন মিসের ব্যাখ্যা খুঁজে পান না, ‘সত্যি বলতে, সে যা করেছে তার ব্যাখ্যা দেয়া কঠিন। কারণ হঠাতই সে আনমার্ক হয়ে গিয়েছিল। তার পায়ে বল এসেছে এবং গোলপোস্ট থেকে ২০ মিটার দূরে ছিল। তখন তার সামনে সবগুলো বিকল্প খোলা ছিল। কিন্তু সে তার কাজটি করতে ব্যর্থ হয় এবং তোপের মুখে পড়ে।’
দুই দফায় আর্জেন্টিনার দায়িত্ব পালন করা এই কোচ এখানেই থামেন না। বলেন, ‘এটা বলতে ভালো শোনায় না যে, সে নিজেকে কলঙ্কিত করেছে। কিন্তু মূলত এটাই ঘটেছে। যদি সে তার দায়িত্ববোধ নিয়ে ভাবে তবে দেখবে, যদি সে (হিগুয়েইন) গোল করতে পারতো তবে আর্জেন্টিনাকে সে বিশ্বকাপ এনে দিতে পারতো। যা তাকে অমরত্ব দিত।’ বাসিলে সমালোচনা করেছেন হোর্হে সাম্পাওলি, মার্সেলো বিলসা, ডিয়েগো ম্যারাডোনারও।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ