প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সড়ক দুর্ঘটনায় প্রতিদিন মারা যাচ্ছে গড়ে ৬৪ জন

দেশে প্রতিদিন সড়ক দুর্ঘটনায় গড়ে ৬৪ জন মানুষ মারা যাচ্ছেন। পাশাপাশি প্রতিদিন আহত ও পঙ্গুত্বের তালিকায় যুক্ত হচ্ছে ১৫০ জনেরও বেশি মানুষ।

শনিবার রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে ‘সড়কে নৈরাজ্য ও অব্যবস্থাপনা উত্তরণের উপায়’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠকে তিনি এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশ যাত্রীকল্যাণ সমিতির মহাসচিব মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক চৌধুরী বলেন, সব দুর্ঘটনাকে দুর্ঘটনা নয়, পরিকল্পিত হত্যাকা- বলতে চাই। কেন না, আমাদের সড়কের সমস্ত অব্যবস্থাপনা, বিশৃঙ্খলা ও নৈরাজ্যকর পরিবেশে আমাদের যাতায়াতে বাধ্য করা হচ্ছে।

আলোচনায় বক্তারা বলেন, সড়কে অব্যবস্থাপনার পেছনে প্রধান কারণ মধ্যসত্বভোগীদের দৌরাত্ব্য। রেলপথ ও নৌপথে বিনিয়োগ না হওয়া এবং দাতাগোষ্ঠীর আগ্রহ কম হওয়ায় সড়কে চাপ বাড়ছে। এছাড়া চালকদের কর্মঘণ্টার নির্দিষ্ট নীতিমালা না থাকায় দুর্ঘটনার আরেকটি কারণ।

আলোচনা সভায় বক্তারা আরও বলেন, রাজধানীসহ সারা দেশে গণপরিবহনে নৈরাজ্য চলছে। এক বাসের সঙ্গে অন্য বাসের রেষারেষি ও বেপরোয়া চলাচলের কারণে দুর্ঘটনায় প্রাণ হারাচ্ছে যাত্রীরা। যাত্রী ধরার জন্য বাসে-বাসে চলে ভয়ঙ্কর প্রতিযোগিতা, অব্যবস্থাপনা ও বিশৃঙ্খলার ঢাকায় এটা গণপরিবহনের নিত্য দিনের চিত্র।

রাজধানীতে ৮৭ শতাংশ বাস-মিনিবাস ট্রাফিক আইন লঙ্ঘন করে বেপরোয়া চলাচল করে, ফলে এসব বাসে দুর্ঘটনায় কারও হাত, কারও পা, কারও মাথা বা কারও জীবনও চলে যায়।

আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান কাজী রিয়াজুল হক, ডিটিসি-এর সাবেক নির্বাহী পরিচালক গণপরিবহন বিশেষজ্ঞ ড. সালেহ উদ্দীন আহমেদ, নগর পরিকল্পনাবিদ স্থপতি মোবাশ্বের হোসেন, নগর পরিকল্পনাবিদ ইকবাল হাবিবসহ অনেকে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত