প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

চাতালের ছাইয়ে অন্ধত্ব সহ নানান দুর্ভোগে নওগাঁর মানুষ

নওগাঁয়ে রয়েছে অসংখ্য চাতাল ও অটো রাইসমিল। তবে এই চাতালের ছাই ও বিষাক্ত বর্জ্য ফেলে রাখায় মারাত্মক পরিবেশ দূষণের কবলে পড়েছে এলাকাবাসী। সড়কের পাশে ফেলা ছাইয়ে পড়ে এক নারীর মৃত্যুসহ অন্ধ হয়েছেন একাধিক ব্যক্তি।

ভুক্তভোগীরা জানান, মিল মালিক সমিতি ও প্রশাসনে অভিযোগ করেও কোন প্রতিকার মিলছে না। বরাবরের মতো, পরিবেশ দূষণকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থার নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছে জেলা প্রশাসন।

মহাদেবপুর উপজেলার আখেড়া, চৌকগরীহাট, হাপানিয়াসহ প্রায় ২০ কিলোমিটার জুড়ে সড়কের দুধারেই ফেলা হচ্ছে চাতালের ছাই ও বিষাক্ত বর্জ্য। যার কারনে বিষিয়ে উঠেছে এলাকাবাসীর জীবন।

নওগাঁয় রয়েছে ছোট বড় প্রায় ১২’শ ধানের চাতাল ও অটো রাইসমিল। এসব চাতাল বেশির ভাগ গড়ে তোলা হয়েছে সড়কের দু’পাশে। সামান্য বাতাসে যাত্রীসহ পথচারীদের চোখেমুখে উড়ে পড়ছে ছাই।

সম্প্রতি নওগাঁর মহাদেবপুরে সড়কের পাশে ফেলা ছাইয়ে পড়ে গিয়ে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া ৫ জন চোখে ছাই পড়ে অন্ধ হয়েছেন।

ছাইয়ে পড়ে নিহতের পিতা শ্রী গৌতম কুমার মহন্ত বলেন, ‘শুধু আমার গৌরির প্রাণ গিয়েছে তা নয়, আরো অনেকেরই শরীর ঝলসে গেছে। হাত-পা হারিয়েছে।

ছাই পড়ে অন্ধ হওয়া রিকশাচালক মো: আনোয়ার হোসেন বলেন, আমার চোখে বয়লারের চাই এসে পড়ে। তারপর ডাক্তারের কাছে যাওয়ার পরে জানা যায় চোখ নষ্ট হয়ে গেছে।

সড়কের পাশে এভাবে প্রকাশ্য ছাই ফেলা হলেও চাতাল ব্যবসায়ীরা দেখাচ্ছেন খোঁড়া যুক্তি।

মহাদেবপুর পিকে রাইসমিল পরিচালক শ্রী রজিত কুন্ডু বলেন, আমরা ছাই ফেলার জন্য একটা নির্দিষ্ট স্থান তৈরি করেছি। ছাই ফেলার জন্য জায়গাটি আরো বড় ও প্রস্থ কারা করা হবে।

মহাদেবপুর সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো: মাহবুবুর রহমান ধলু বলেছেন, যত্রতত্র ছাই ফেলার ব্যাপারে উপজেলা প্রশাসনের সমন্বয় মিটিংয়ে একাধিকবার আলোচনার পরেও কোন কাজ হচ্ছে না। দোষিদের বলেও কোনও লাভ হচ্ছে না।

নওগাঁ প্রশাসক মো: মিজানুর রহমান বলেছেন, পরিবেশ দূষণ রোধে মোবাইল কোর্টসহ দোষীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা হচ্ছে। চাতাল কলের যে মালিক আছে এবং তাদের যে কমিটি আছে সবার সাথে আলোচনার মাধ্যমে একটি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

চাতালের ছাইয়ের কারনে এলাকার গাছপালা মরে যাচ্ছে, শাকসব্জি ও ফসলের উৎপাদন অস্বাভাবিকভাবে কমার পাশাপাশি মানুষ বিভিন্ন অসুখে ভুগছে বলে অভিযোগ এলাকাবাসীর। সূত্র : সময় টিভি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত