প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ছাত্রীদেরকে রাতে হল থেকে বের করে দেয়া ন্যাক্কারজনক : বিএনপি

দেশের সর্বোচ্চ বিদ্যাপিঠ ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের ছাত্রীদেরকে গভীর রাতে হল থেকে সম্পূর্ণ অমানবিক আচরণের মাধ্যমে বের করে দেয়া হয়। যা দেশের ইতিহাসে একটি অন্যতম ন্যাক্কারজনক ও কলঙ্কজনক ঘটনা বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রহুল কবির রিজভী। তিনি বলেন, ছাত্রীদের প্রতি ছাত্রলীগের নির্যাতনকে জারী রাখার ছাড়পত্র দিয়েছে বর্তমান সরকার। ছাত্রলীগের অপকর্ম সমূহের মদদদাতা আওয়ামী সমর্থিত ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা যে এতো নীচে নামতে পারে, সেটি দেখে বিবেকবান মানুষ’রা আজ বিস্মিত, হতভম্ব। আওয়ামী ক্ষমতার বলয়ে ঢুকে এরা শিক্ষার মূল আদর্শকেই জলাঞ্জলি দিয়েছেন। আওয়ামী সমর্থিত শিক্ষক ও ছাত্রলীগ যেন একই মুদ্রার এপিঠ ওপিঠ।

ঢাবির হল থেকে গভীর রাতে ছাত্রীদের বের করে দেওয়ার ঘটনায় এক প্রতিক্রিয়া রিজভী এসব কথা বলেন। বিএনপির এই নেতা বলেন, গতকাল লন্ডনে সরকার প্রধানদের ২৫তম কমনওয়েলথ সম্মেলনে এক্সিকিউটিভ সেশনে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী বলেছেন-‘টেকসই শান্তি এবং স্থিতিশীলতার ভিত্তি হচ্ছে গণতন্ত্রের উন্নয়ন, সুশাসন ও আইনের শাসন’। প্রধানমন্ত্রী’র বক্তব্যে কমনওয়েলথে যোগ দেয়া বিভিন্ন দেশের সরকার প্রধান’রা নিশ্চয়ই বিস্ময়ে হতবাক হয়েছেন। কারণ বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ইতোমধ্যে স্বৈরাচারের আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পেয়েছেন। তাঁর নেতৃত্বেই বাংলাদেশে গণতন্ত্রকে হত্যা করা হয়েছে। বর্তমানে দেশে গণতন্ত্রের বিকাশ তো দুরে থাক, ন্যুনতম গণতন্ত্র, সুশাসন ও আইনের শাসন সম্পূর্ণরুপে উধাও হয়ে গেছে। প্রধানমন্ত্রীর এহেন বক্তব্য যেন বাংলাদেশের গণতন্ত্রকামী মানুষের প্রতি চরম উপহাস ও মসকরা করা। প্রধানমন্ত্রী যখন কমনওয়েলথ সম্মেলনে বক্তব্য রাখছিলেন তখন ঢাবির হল থেকে গভীর রাতে ছাত্রীদের বের করে দেওয়া হচ্ছে।

রিজভী বলেন, একই সময়ে চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রনি পূর্বে একজন অধ্যক্ষকে এবং গতকাল এক কোচিং সেন্টার মালিককে চাঁদার দাবিতে যে অমানবিক নির্যাতন করেছে সেই ভিডিওটিও দেশ-বিদেশের সর্বত্র ভাইরাল হয়ে গেছে। এর আগেও এই ছাত্রলীগ নেতা অবৈধ অস্ত্রসহ ধরা পড়ে কিন্তু থেকে যায় ধরাছোঁয়ার বাইরে। দেখা যাবে সেও ছাত্রলীগের রগকাটা নেত্রী এশা’র মতো তিরস্কারের পরিবর্তে পুরস্কৃত হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত