প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ঐতিহাসিক মুজিব নগর দিবস উপলক্ষ্যে ধামরাইয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

মো. আল মামুন খান, ধামরাই: ঢাকা জেলার ধামরাই উপজেলায় র‍্যালি, আলোচনা সভা এবং মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের ভিতর দিয়ে পালিত হলোঐতিহাসিক মুজিব নগর দিবস।

উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে দিবসটি উপলক্ষে ১৭ এপ্রিল (মঙ্গলবার) সকালে ধামরাই উপজেলা মিলনায়তনে আলোচনা সভা ও এক বর্ণাঢ্য সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদের সভাপতিত্বে সভাটি অনুষ্ঠিত হয়। এসময় উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তা কর্মচারী উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে ১৫ এপ্রিল (রবিবার) উপজেলায় মুজিব নগর দিবস উপলক্ষে র‌্যালি, আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়েছে। সকাল দশটায় ধামরাই পৌর এলাকার ঢুলিভিটায় মন্নু কমিউনিটি সেন্টারে উপজেলা আওয়ামী লীগ ও মুক্তিযোদ্ধা সংসদের আয়োজনে এই র‌্যালী, আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এরপরে সকাল এগারটায় একাত্তরের যুদ্ধকালীন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার সাবেক সংসদ সদস্য বেনজীর আহমদের নেতৃত্বে একটি র‍্যালি মন্নু কমিউনিটি সেন্টার থেকে বের হয়ে ঢাকা আরিচা মহাসড়ক দিয়ে ঢুলিভিটায় ঘুরে পুনরায় মন্নু কমিউনিটি সেন্টার গিয়ে শেষ হয়।

এই অনুষ্ঠানে মুক্তিযোদ্ধা, রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ, স্থানীয় বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ অংশ গ্রহন করেন। এরপর জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনার মধ্য দিয়ে এই অনুষ্ঠানের কয়েক শত মুক্তিযোদ্ধার উপস্থিতিতে আলোচনা সভার শুভ উদ্ধোধন করেন একাত্তরের মুক্তিযোদ্ধা সংগঠক, ধামরাইয়ের প্রথম সাংসদ ( ১৯৭০ বঙ্গবন্ধুর সময়ে) সমাজ সেবক আলহাজ্ব মোঃ জামাল উদ্দিন আহম্মদ।

ধামরাই থানা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের নির্বাচিত কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোঃ আব্দুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন ধামরাইয়ের সাবেক সাংসদ “বায়রা” ও ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সম্ভাব্য প্রার্থী মুক্তিযোদ্ধো আলহাজ্ব বেনজীর আহমদ।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সাবেক সচিব ও রাষ্ট্র দূত মুক্তিযোদ্ধা সোহরাব হোসেন ,সাবেক ধামরাই উপজেলা চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা শরিফুল ইসলাম খান, ধামরাই থানা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা সাখাওয়াত হোসেন সাকু, সাবেক কৃষি ব্যাংকের শাখা ব্যবস্থাপক মুক্তিযোদ্ধা অজিত চক্রবর্তী.দলাল চন্দ্র সরকার, সাবেক বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংকের জেনারেল ম্যানেজার মুক্তিযোদ্ধা নিতাই চাদ-দাস, বিএডিসির সাবেক পরিচালক মুক্তিযোদ্ধা নুরু উজ জামান, বাংলাদেশ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের পরিচালক মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রহমান খান।

আলোচনা সভার আগে ও সভা শেষে স্থানীয় দোয়েল শিল্পী গোষ্ঠীর এক দল শিল্পী শহিদুর রহমান টিপুর পরিচালনায় জম্পেশ এক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপহার দেন। সঙ্গীত পরিবেশন করেন নৃত্যে পৃথা সন্নাসী, বুশরা, ক্ষুদে রাজ রজশিল্পী তানহা, তিথি, জাবির হোসেন চৌধুরী টিটু সহ আরো অনেকে।

উল্লেখ্য, মুক্তিযুদ্ধের কিছুদিনের মধ্যেই ১৯৭১ সালের ১০ই এপ্রিল গঠিত হয় বাংলাদেশের প্রথম প্রবাসী সরকার, যা মুজিবনগর সরকার নামে পরিচিত। ১৭ই এপ্রিল মেহেরপুর জেলার বৈদ্যনাথতলা (বর্তমান উপজেলা মুজিবনগর) গ্রামের আমবাগানে তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের বিপ্লবী সরকার শপথ গ্রহণ করেছিলো। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এই সরকারের রাষ্ট্রপতি নিযুক্ত হন। কিন্তু তিনি তখন পশ্চিম পাকিস্তানে কারাগারে বন্দী। তাঁর অনুপস্থিতিতে উপ-রাষ্ট্রপতি, সৈয়দ নজরুল ইসলাম অস্থায়ী রাষ্ট্রপতির দায়িত্ব পালন করেন। তাজউদ্দীন আহমদ প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। মুক্তিযুদ্ধ পরিচালনা এবং দেশে ও বিদেশে এই যুদ্ধের পক্ষে জনমত গড়ে তোলা ও সমর্থন আদায় করার ক্ষেত্রে এই সরকার গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এই সরকার গঠনের পর থেকে অগণিত মানুষ দেশকে মুক্ত করার জন্য সশস্ত্র সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়ে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত