প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে মামলাগুলো অবিলম্বে প্রত্যাহার করা হোক

লাকী আক্তার : এইভাবে ছাত্রদেরকে হয়রানি করা কোনভাবেই কাম্য নয় । একটা আন্দোলন, এটা স্বতঃস্ফুর্তভাবে সাধারণ ছাত্ররাই করেছে। এই আন্দোলনের সাথে শরিক হয়েছে অনেকেই। এখন সেই আন্দোলনে শরিক হওয়ার কারণে তাদের সেই আন্দোলন মেনে নিতে বাধ্য হয়েছে সরকার। যদিও সে আন্দোলনের দাবি ছিলো, কোটা সংস্কার করা এবং আমারও সুস্পষ্ট বক্তব্য ছিলো যে, কোটা সংস্কার করার । আমি কোটা বাতিল এর পক্ষে না, কোটা সংস্কারের পক্ষে । যদিও প্রধানমন্ত্রী কোটা সংস্কার করেননি। ওনি বাতিল করে দিয়েছেন। আমি তার মতামতের সাথে আমি একমত নই।

আমি মনে করি, কোটার পার্সেন্টিজ কমানো যেতে পারে এবং যৈৗক্তিকভাবেই সেটাকে কমিয়ে সংস্কার উচিত। এটা হচ্ছে প্রথমতো আমার আন্দোলন নিয়ে বক্তব্য । দ্বিতীয়তঃ হচ্ছে সে আন্দোলন করতে গিয়ে ছাত্ররা পুলিশের হয়রানির শিকার হচ্ছে, এটা কোনভাবেই কাম্য না । একটা আন্দোলনের যেহেতু দাবি মানা হয়েছে এবং সরকার সেই দাবি মেনে নিয়েছে । সেই দাবি মেনে নেওয়ার পরেও যখন তারা এই ধরনের কাজ করছে, তখন তো আসলে বুঝাই যাচ্ছে তারা যে কোটা টা বাতিল করেছে, তা রাগে অভিমানের মধ্য দিয়ে।

তিনি এই কোটা বাতিলের পক্ষে অবস্থান নিয়েছেন এবং ছাত্রলীগের আন্দোলন দমানোর জন্যে যে এই কাজগুলোকে সমর্থন করছেন, তা আসলে বুঝাই যায় । আমি চাই সকল ছাত্র নিরাপদে থাকুক, শিক্ষার্থীরা নিরাপদে থাকুক এবং চাই তাদের উপর যে মামলাগুলো আছে, সেই মামলাগুলো অবিলম্বে প্রত্যাহার করা হোক এবং পুলিশের হয়রানি যেন ব›ধ হয় ।

পরিচিতি : সাবেক সভাপতি, ছাত্র ইউনিয়ন / মতামত গ্রহণ : নৌশিন আহম্মেদ মনিরা/সম্পাদনা : মোহাম্মদ আবদুল অদুদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত