প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

প্রতারণার দায়ে সাড়ে ৯ হাজার প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

ফয়সাল মেহেদী: ভোক্তা অধিকারে অভিযোগের সংখ্যা দিনদিন বাড়ছে। একই সঙ্গে বাড়ছে নিষ্পত্তি ও জরিমানা আদায়ের পরিমাণ। চলতি অর্থবছরের ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত বিভিন্ন অভিযোগ ও প্রতারণার দায়ে ৯ হাজার ৫৯০টি প্রতিষ্ঠান থেকে ৯ কোটি ৬৪ লাখ ৭৮ হাজার ১০০ টাকা জরিমানা আদায় করেছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। এর মধ্যে ৯ কোটি ৩২ লাখ ৭৪ হাজার ৭৭৫ টাকা জমা হয়েছে সরকারি কোষাগারে।

ভোক্তা অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, নির্ধারিত মূল্যের অধিক মূল্যে পণ্য বিক্রি, জেনেশুনে ভেজাল ওষুধ ও স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর পণ্য বিক্রি, মিথ্যা বিজ্ঞাপন দিয়ে প্রতারণা, পরিমাপ ও ওজনে কারচুপি, মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য বিক্রি এবং মূল্য তালিকা প্রদর্শন না করাসহ ১৫টি ভোক্তা অধিকার বিরোধী কাজের দায়ে প্রতিষ্ঠানগুলোকে অর্থদণ্ড দিয়েছে ভোক্তা অধিদপ্তর।

জানা গেছে, আলোচ্য সময়ে ১ হাজার ৬৪৯ জন অভিযোগকারীর অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে করা জরিমানার ২৫ শতাংশ হিসাবে ৩২ লাখ ৩ হাজার ৩২৫ টাকা পেয়েছেন অভিযোগকারীরা। এ সময়ে ২ হাজার ৭৩৯টি বাজার অভিযান পরিচালনা করে সংস্থাটি।

এদিকে ১৬ এপ্রিল পর্যন্ত ৭ হাজার ২২৮টি লিখিত অভিযোগ জমা পড়েছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরে। এর মধ্যে ৬ হাজার ৩৫১টি অভিযোগ নিষ্পত্তি করা হয়েছে। বাকি ৮৭৭টি অভিযোগ অনিষ্পত্তি রয়েছে। এছাড়া ১০ এপ্রিল পর্যন্ত ৫২০টি গণশুনানি অনুষ্ঠিত হয়েছে এবং ১ হাজার ২৬টি মতবিনিময় সভা-সেমিনার হয়েছে।

প্রতারণার দায়ে দুদিনে সাড়ে ১১ লাখ টাকা জরিমানা আদায়: জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালিয়ে দুই দিনে ১১ লাখ ৪৮ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত