প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পাকিস্তানে তৃতীয় লিঙ্গের স্কুলের যাত্রা শুরু

নূর মাজিদ: পাকিস্তানে তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদের শিক্ষা দেয়ার লক্ষ্যে এই প্রথম বিশেষ স্কুল যাত্রা শুরু করেছে। এই স্কুলে শুধুমাত্র সামাজিক সুযোগ-সুবিধা বঞ্চিত তৃতীয় লিঙ্গের পূর্ণবয়স্ক মানুষ ও শিশুরা পড়াশোনা করতে পারবে। এক্সপ্লোরিং ফিউচার ফাউন্ডেশন নামে পাকিস্তানী এনজিও তাদের প্রথম প্রকল্প হিসেবে এই স্কুল প্রতিষ্ঠার ঘোষণা দিয়েছেন।

রোববার লাহরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে এই উপলক্ষে এক বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে স্কুলটি শুরু করার ঘোষণায় এনজিও’টির প্রধান নির্বাহী মইজা তারিক জানান, “ইতিমধ্যেই এই স্কুলের উদ্বোধনী ব্যাচের তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদের আমরা প্রাতিষ্ঠানিক এবং কারিগরি শিক্ষাদানের কার্যক্রম হাতে নিয়েছি। বাস্তবসম্মত এবং একই সাথে জ্ঞানভিত্তিক কারিকুলামের মাধ্যমে আমরা তাদের প্রকৃত শিক্ষিত ও যোগ্য করে তুলে সমাজে তাদের প্রতিষ্ঠিত করতে চাই।”

এদিকে স্কুলটির প্রধান ব্যবস্থাপক আসিফ শাহজাদ জানিয়েছেন, ইতোমধ্যেই তাদের প্রথম ব্যাচের শিক্ষার্থী সংখ্যা ৩০জনে পরিণত হয়েছে। স্কুলটি প্রতিষ্ঠার উদ্দেশ্য সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘২০১৬ সালে ইন্দোনেশিয়ায় তৃতীয় লিঙ্গের স্কুলে বোমা হামলার ঘটনায় আমি দারুণ মর্মাহত হই, সম্পূর্ণ ইসলামিক বিশ্বে একমাত্র ঐ স্কুলটি তৃতীয় লিঙ্গের জন্য আলাদা শিক্ষার ব্যবস্থা করেছিলো। ঐ ঘটনার পরেই আমি পাকিস্তানে এমন স্কুল প্রতিষ্ঠার সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলি এবং সেই লক্ষ্যে কাজ করতে থাকি।’

বিশেষায়িত এই স্কুলটিতে ভর্তিতে কোন বয়সসীমার বাধ্যবাধকতা নেই এবং নিরাপত্তার স্বার্থে জেন্ডার গার্ডিয়ান নামক এই স্কুলটি সামরিক বাহিনীর নিজস্ব আবাসিক এলাকায় স্থাপন করা হয়েছে।

এদিকে স্কুলটি প্রতিষ্ঠার বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানে সঙ্গীত পরিবেশন করে পাকিস্তানের জনপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পী অ্যানী খালেদ এবং ব্যান্ড ফালাক। এরপর সেখানে মঞ্চনাটক পরিবেশিত হয়। ডন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ