প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

৬ দিনের লাইফ সাপোর্টেও স্বজ্ঞান হয়নি রাজীব

রিকু আমির : ৬দিন ধরে লাইফ সাপোর্ট দিয়েও স্বজ্ঞান করা যায়নি ঢাকার তিতুমীর কলেজের স্নাতক শ্রেণীর শিক্ষার্থী রাজীবকে। ঢাকার কাওরান বাজারে দুই বাসের রেষারেষিতে গত ৩ এপ্রিল এই রাজীবের ডান হাত দেহ থেকে বিচ্ছিন্ন এবং মস্তিষ্কে আঘাতপ্রাপ্ত হয়। তাকে প্রথমে পান্থপথস্থ শমরিতা মেডিকেল পরে নেয়া হয় ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে।
তার চিকিৎসায় গঠিত সাত সদস্যের মেডিকেল বোর্ড প্রধান ঢামেক হাসপাতালের অর্থোপেডিক্স বিভাগের প্রধান অধ্যাপক শামসুজ্জামান শাহীন এ প্রতিবেদককে পুরোনো কথাই বলেন। তিনি বলেন, রাজীবের কিডনি, লিভার, ফুসফুস ঠিকভাবেই কাজ করছে। শুধুমাত্র ব্রেন থেকে সিগন্যাল পাস হচ্ছে না।
দুর্ঘটনায় রাজীবের মাথার হাড় ভেঙে যায়। আঘাত গড়ায় ব্রেন পর্যন্ত। মাথার ভেতর আঘাতস্থল থেকে কয়েকবার রক্তক্ষরণও হয় বলে সিটিস্ক্যানের মাধ্যমে চিকিৎসকরা বুঝতে পারেন। সর্বশেষ গত মঙ্গলবার ব্রেনে আঘাতস্থল ফুলে রক্তক্ষরণ হয়, এতে তার শ্বাসকষ্ট বেড়ে গেলে লাইফ সাপোর্ট দেয়া হয়।
শামসুজ্জামান শাহীন বলেন, লাইফ সাপোর্টে দেবার একদিন আগে রাজীবকে আমরা বুঝিয়ে শুনিয়ে খাদ্য গ্রহণ করিয়েছিলাম। তখন আমাদের আশা অনেক বেড়ে গিয়েছিল। কিন্তু সেইদিন গড়িয়ে রাতেই তার অবস্থার এতো দ্রুত অবনতিতে আমরা অবাক এবং ভীষণ মনোকষ্ট পেয়েছি। এখন আল্লাহকে ডাকছি আর তাকে সর্বোচ্চ সাপোর্ট দিয়ে যাচ্ছি।
গত বৃহস্পতিবার রাজীবের তাপমাত্রা বেড়ে যায়। তার ছোট ভাই মাদ্রাসা শিক্ষার্থী মোহাম্মদ আবদুল্লাহ জানান, বৃহস্পতিবার রাত থেকে অনেক জ্বর ছিল রাজীবের। অন্যদিনের চেয়ে রাজীবের অবস্থা শুক্রবার আরও খারাপের দিকে যায়।
যদিও সেই অবস্থা ভালর দিকে যায় ওষুধ প্রয়োগের মাধ্যমে বলে জানান অধ্যাপক শামসুজ্জামান।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ