প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

যুক্তফ্রন্ট ও বাম জোটের শীর্ষ নেতাদের মন্তব্য
কোটা সংস্কারের গণতান্ত্রিক দাবির আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি অর্জিত হয়েছে

রফিক আহমেদ : যুক্তফ্রন্ট ও বাম জোটের শীর্ষ নেতারা বলেছেন, কোটা সংস্কারের যৌক্তিক ও গণতান্ত্রিক দাবির আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি অর্জিত হয়েছে। আন্দোলনের ন্যায্যতা ও যুক্তিকতাও স্বীকৃত হয়েছে। দেশব্যাপী ছাত্র তরুণদের গণজাগরনের এটা সাফল্য। শুক্রবার যুক্তফ্রন্ট ও বাম জোটের নেতারা প্রতিক্রিয়ায় এসব কথা বলেন।

যুক্তফ্রন্টের শীর্ষ নেতা মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, প্রধানমন্ত্রীর কোটা সংস্কার বাতিলের ঘোষণা ন্যায্যতা পরিপন্থী। আন্দোলনকারীরা কোটার সংস্কার চেয়েছিলো, বাতিল চায়নি। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী সেটাই করলেন। জাতীয় সংসদে গত বুধবার সব ধরণের কোটা বাতিল হবে বলে যেভাবে ঘোষণা দিয়েছেন সেটা রাষ্ট্রনায়কসুলভ হয়নি একেবারেই। আন্দোলনকারীদের ন্যায্য দাবির প্রতিক্রিয়া এভাবে দেখানোটা অনভিপ্রেত।

মান্না বলেন- অনেকে এই সন্দেহ করছেন, কোটা একেবারে না থাকা সংবিধানের ২৮(৪) এবং ২৯ (৩)(ক) অনুচ্ছেদের পরিপন্থী, তাই কোটা একেবারে না থাকাটা উচ্চ আদালতের রিটে আটকে যাবে। আমি অবশ্য মনে করি না কোটা একেবারে না থাকাটা ওই অনুচ্ছেদ গুলোর পরিপন্থী।

তিনি বলেন, আমি জোর দাবি জানাই শুধু মৌখিক ঘোষণাই নয়, দ্রুত প্রজ্ঞাপন জারি করে প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্তকে বাস্তবায়ন করতে হবে। আন্দোলনের সময় গ্রেফতারকৃত সবাইকে এখনই মুক্তি দিতে হবে এবং হয়রানিমূলক সব মামলা প্রত্যাহার করতে হবে।

বাম জোটের শীর্ষ নেতা সাইফুল হক বলেন, দেশব্যাপী আন্দোলনকারী ছাত্র তরুণদের গণজাগরনের এটা সাফল্য। ছাত্ররা কোটা ব্যবস্থার গণতান্ত্রিক সংস্কার চেয়েছে। কিন্তু বিলুপ্ত চায়নি। প্রধানমন্ত্রী যে বক্তব্য দিয়েছে রাগ ক্ষোভ ও অভিমানের বহিঃপ্রকাশ হিসেবে মনে হয়েছে। তিনি অনেক জেদ ও অভিমান করে সমগ্র কোটা ব্যবস্থা তুলে দেওয়ার কথা বলেছেন। আন্দোলনরত ছাত্ররা এ দাবি করেননি।

তিনি বলেন, বলেন, আমরা মনে করি সমগ্র কোটা ব্যবস্থার বিলুপ্তি নয়, বরং সরকার বিদ্যমান কোটা ব্যবস্থার যুযোপযোগী গণতান্ত্রিক সংস্কারের অনতিবিলম্বে কার্যকরী উদ্যোগ নেবে এবং তা বাস্তবায়ন করা এটাই দেশবাসীর প্রত্যাশা। আমরা মনে করি কোটা ব্যবস্থার ব্যাপারে অবিলম্বে একটি কমিশন গঠন করে সমস্ত বিষয়টির যুক্তিক সমাধান করা উচিত। একই সঙ্গে আমরা আন্দোলনে যুক্ত ছাত্র-ছাত্রীদের বিরুদ্ধে হয়রানিমূলক মামলা প্রত্যাহারেরও দাবি জানাই।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত