প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

তাহিরপুরে এক যুবকের গলা কেটে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা

আশরাফ চৌধুরী রাজু, সিলেট: তাহিরপুরে এক যুবকের গলার শ্বাষনালী কেটে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এই যুবকের নাম সোলেমান মিয়া (৩২)।

সে তাহিরপুর উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের কচুনআলী গ্রামের সরুজ মিয়ার ছেলে।

শুক্রবার দুপুর ২টার দিকে টাঙ্গুয়া হাওর তীরে বিনোদপুর গ্রামের সামনে ঈগল বাগান থেকে রক্তাত্ব অবস্থায় শ্বাষনালী কাটা যুবককে পুলিশ উদ্ধার করে। পরে তাহিরপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে এখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তার অবস্থা আশংখা জনক হওয়ায় দ্রুত সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে প্রেরন করে।তাহিরপুর সদর হাসপাতালের জররী বিভাগের চিকিৎসক জানিয়েছেন, সে এখনও জীবিত আছে, তার অবস্থা আশংখাজনক। তার গলার শ্বাষনালী পুরোটাই কাটা।

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, সোলেমান মিয়া গত তিনদিন ধরে বাড়ী থেকে নিখোঁজ ছিলেন। অনেক খোজাঁখুজি করেও তাকে পাওয়া যাচ্ছিলনা।

শুক্রবার দুপুর দেড়টার দিকে টাঙ্গুয়া হাওর তীরে বিনোদপুর গ্রামের সামনে ঈগল বাগানে সোলেমান মিয়া শ্বাষনালী কাটা অবস্থায় চটপট করতে দেখেন কলাগাও গ্রামের কৃষক রোখন মিয়া। রুখন মিয়া প্রথমে তাকে এই অবস্থা দেখতে পেয়ে স্থানীয় লোকজন কে বিষয়টি জানান এবং থানায় খবর দেন।

দুপুর ২টার দিকে ট্যাকেরঘাট পুলিশ ফাড়িঁর এএসআই ইমাম হোসেন ঘটনাস্থলে এসে তাকে উদ্ধার করে দ্রুত তাহিরপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে যান। তার অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাহিরপুর সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে প্রেরন করেন।তাহিরপুর থানার ওসি নন্দন কান্তি ধর বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, গলার শ্বাষনালী কাটা এক যুবককে পুলিশ উদ্ধার করেছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত