প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

একটি প্রদেশকে রাষ্ট্রে পরিণত করেছেন বঙ্গবন্ধু: প্রধানমন্ত্রী (ভিডিও)

জুয়াইরিয়া ফৌজিয়া : যুদ্ধ শেষ হওয়ার পর জাতির পিতা বিধ্বস্ত দেশকে গড়ে তুলতে নানা পদক্ষেপ নেন। এটি খুবই কঠিন কাজ ছিল। একটি প্রদেশকে রাষ্ট্রে পরিণত করতে প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা তিনি গ্রহণ করেছিলেন। আর বাংলাদেশ তখনই স্বল্পোন্নত দেশ হিসেবে যাত্রা শুরু করে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৃহস্পতিবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। উন্নয়নশীল দেশের কাতারে বাংলাদেশের অন্তর্ভূক্তি উদযাপনে ওই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন , আমার ভাবতে অবাক লাগে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কীভাবে এত কম সময়ে দেশের জন্য এত কাজ করেছেন। তার নেতৃত্বে ও নির্দেশে বাংলাদেশ স্বাধীনতা অর্জন করে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মাত্র ৯ মাসের মধ্যে বাংলাদেশকে একটি সংবিধান উপহার দিয়েছেন। যে সংবিধানে বাঙালীর মৌলিক অধিকারের কথা স্পষ্টভাবে বলা আছে।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, মানুষ অনেক আকাঙ্খা নিয়ে রাজনীতি করে। কিন্তু যে রাজনীতি আমি আমার বাবার কাছ থেকে, মায়ের কাছ থেকে শিখেছি সেটি হল নিজের উন্নয়নের জন্য নয়, মানুষের কল্যাণের জন্য কাজ করা, তাদের সুন্দর জীবন উপহার দেয়া। বঙ্গবন্ধুর শাসনামলের সাফল্যের দিকগুলো উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, পাকিস্তানের দোসররা এটি সহ্য করতে না পেরে তাকে হত্যা করেছে। আমি বাবা-মা-ভাইদের হারিয়েছি। বিদেশে থাকায় আমি ও আমার বোন বেঁচে গিয়েছিলাম। কিন্তু সে বেঁচে থাকাটা যে কতটা দুঃসহ ও যাতনার যারা প্রিয়জনকে হারিয়েছে তারাই শুধু বুঝতে পারবে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের উন্নয়নে অবদান রাখার জন্য কৃষক-শ্রমিক-মেহনতি মানুষসহ সকল শ্রেণি পেশার মানুষকে ধন্যবাদ। আমি মনে করি জনগণই মূল শক্তি। তারাই পারে সবকিছু অর্জন করতে। তারা একযোগে কাজ করেছে বলেই দেশ এগিয়ে গেছে।

তিনি আরও বলেন, ২০২০ সালে জাতির পিতার জন্ম শতবার্ষিকী আমরা উদযাপন করবো। আমার দৃঢ়বিশ্বাস তখন নিশ্চয়ই তার স্বপ্নের খোদামুক্ত, দারিদ্রমুক্ত সোনার বাংলাদেশ গড়ে আমরা তা অর্জন করতে পারবো। আর দক্ষিণ এশিয়ায় বাংলাদেশকে আমরা ২০৪১ সালের মধ্যে একটি উন্নত দেশ হিসেবে গড়ে তুলবো। জানি না তখন আর বেঁচে থাকবো কিনা। কিন্তু আজকের যে প্রজন্ম তারা নিশ্চয়ই এগিয়ে নিয়ে যাবে।

https://www.youtube.com/watch?v=n09ns1rRR_4&feature=youtu.be

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত