প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শুরু হলো রোবটিক্স প্রতিযোগিতা

নিজস্ব প্রতিবেদক : বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো কলেজ শিক্ষার্থীদের জন্য দুইদিন ব্যাপী রোবটিক্স প্রতিযোগিতা আজ থেকে শুরু হতে যাচ্ছে। বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিডা), জাপানদূতাবাস, জাপান এক্সটারনাল ট্রেড অরগানাইজেশন (জেইটিআরও) ও আইসিটি মন্ত্রণালয়ের সার্বিক সহযোগিতায় জাপানের এড্যুকেশন টেকনোলোজি কোম্পানি ভেনচুরাস লিমিটেড এই
প্রতিযোগিতা আয়োজন করেছে। প্রতিযোগিতার প্রথমদিনে আজ শিক্ষার্থীদের জন্য ওয়ার্কশপ আয়োজন করা হয়েছে। ঢাকার

ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির (ইউআইইউ) নতুন ক্যাম্পাসে সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত এই ওয়ার্কশপ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ওয়ার্কশপ সব কলেজের শিক্ষার্থীদের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হয়েছে। এতে বিভিন্ন কলেজ থেকে ৭০০ থেকে ৮০০ শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে। ওয়ার্কশপে শিক্ষার্থীদের জন্য ক্যারিয়ার সেমিনার, প্যানেল ডিসকাশন এবং কোডিং সেশন আয়োজন করা হয়েছে। এর মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা প্রোগ্রামিং, কোডিং, ইঞ্জিনিয়ারিং, আইসিটি সম্পর্কে বিভিন্ন ধরণের দক্ষতা এবং অভিজ্ঞতা অর্জন করার সুযোগ পেয়েছে।

ওয়ার্কশপ পরিচালনা করেছেন ভিলিং গ্রুপের সিইও কাজাউকি নাকামুরা, টাফটস ইউনভার্সিটির সিসিইও অ্যাডভাইসরি মাসাও ইশিহারা এবং মনস্টার ল্যাব বাংলাদেশের সিইও কাজাউকি নাকাইয়ামা।

ওয়ার্কশপে অংশগ্রহণ করার মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা কীভাবে একজন সুপার প্রোগ্রামার হিসেবে নিজেকে গড়ে তোলা সম্ভব এবং কীভাবে একজন দক্ষ ইঞ্জিনিয়ার হওয়ার জন্য একটি ভালো বিশ্ববিদ্যালয় বাছাই করতে হবে তা জানতে পেরেছে। এছাড়াও ওয়ার্কশপে উপস্থিত বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের
সিএসই/ইইই বিভাগের প্রফেসরের কাছ থেকে শিক্ষার্থীরা কোডিং ও কীভাবে গেমিং অ্যাপ তৈরি করা যায় তা হাতে কলমে শিখতে পেরেছে।

২২শে মার্চ, প্রতিযোগিতার দ্বিতীয় ও সমাপনী দিনে থাকছে লাইন ট্রেসিং প্রতিযোগিতা। প্রতিযোগিতায় ১১টি কলেজ অংশগ্রহণ করবে যেখানে প্রত্যেক কলেজ থেকে ৫ সদস্যের একটি করে দল থাকবে। বিজয়ী দলকে পুরস্কার হিসেবে ১লক্ষ টাকা দেওয়া হবে। বিজয়ী দলকে মাচিকো ইয়ামামুরা, সেকেন্ড সেক্রেটারি হেড, পাবলিক রিলেশন অ্যান্ড কালচার, মেডেল প্রদান করবেন। এছাড়াও বিজয়ী দল গ্রামীণফোন এক্সেলারেটর প্রোগ্রামে যোগদান করার সুযোগ পাবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত