প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মালদ্বীপে ১৩৯ বিরোধী কর্মী গ্রেফতার, মুক্তি দাবি অ্যামনেস্টির

মো. কামাল হোসেন: মালদ্বীপের পুলিশ কমপক্ষে ১৩৯ জন বিরোধীকর্মীকে গ্রেফতার করেছে। অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল বলেছে, তাদের কোনো ধরনের শর্ত ছাড়া তাৎক্ষণিকভাবে মুক্তি দিতে হবে।

পুলিশ বলছে, বিক্ষোভকারীরা জরুরি অবস্থা অমান্য করে রাজধানী মালের উচ্চ নিরাপত্তা জোনে প্রবেশের চেষ্টাকালে তাদের গ্রেফতার করা হয়। খবর চ্যানেল নিউজ এশিয়ার

এর আগে সুপ্রিম কোর্টের একটি রায়ের পর তাকে উৎখাতের ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে এমন অভিযোগ তুলে গেলো ৫ ফেব্রুয়ারি মালদ্বীপে জরুরি অবস্থা জারি করেন প্রেসিডেন্ট আব্দুল্লা ইয়ামিন। পরে তিনি সেটি ২২ মার্চ পর্যন্ত বৃদ্ধি করেন।

পুলিশের মুখপাত্র আহমেদ শিফান বলেছেন, গত শুক্রবার ১৪১ জনকে গ্রেফতার করা হয়। যদিও দুইজনকে পরে ছেড়ে দেয়া হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে, মাস্কপরিহিত স্পেশাল অপারেশন্স পুলিশ কয়েকজন বিক্ষোভকারীকে গ্রেফতার করে। আর দাঙ্গা পুলিশ কাঁদানে গ্যাস ও মরিচ গুড়ো দিয়ে বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

গেলো সপ্তাহে কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরনের বিক্ষোভ নিষিদ্ধ ঘোষণা করে। সরকারকে সহিংসভাবে উৎখাত ও অস্থিতিশীলতা তৈরির চেষ্টা করা হচ্ছে পুলিশের কাছে এমন তথ্য আছে এ অভিযোগে বিক্ষোভ নিষিদ্ধ করে তারা।

এদিকে অধিকার গ্রুপ অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল বলছে, মালদ্বীপের কর্তৃপক্ষ নিপীড়ন চালাতে জরুরি অবস্থাকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে। আর ‘কেবল মতপ্রকাশের স্বাধীনতা ও শান্তিপূর্ণ সমাবেশ করার দায়ে’ ওই ১৩৯ জনকে আটক করা হয়েছে।

অ্যামনেস্টির দক্ষিণ এশিয়ীয় উপপরিচালক ওমর ওয়ারাইচ এক বিবৃতিতে বলেছেন, তাদের কোনো ধরনের শর্ত ছাড়া তাৎক্ষণিকভাবে মুক্তি দিতে হবে।

অন্যদিকে মালদ্বীপের সরকার বলছে, জরুরি অবস্থা ২২ মার্চের পর আর বাড়ানোর পরিকল্পনা নেই তাদের। সূত্র: আরটিভি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত