প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

তালেবানদের সঙ্গে আলোচনার প্রস্তাব আফগান প্রেসিডেন্টের

ইমরুল শাহেদ : দেশকে রক্ষা করার জন্য তালেবানদের শান্তি আলোচনায় বসার আহবান জানিয়েছেন আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘনি। ২০টি দেশ ও আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিদের নিয়ে বুধবার অনুষ্ঠিত সেকে- কাবুল প্রোসেস কনফারেন্সে তিনি এ কথা বলেন।

যারা আলোচনায় বসবেন তাদের নিরাপত্তা ও পাসপোর্ট দেওয়ার কথাও বলা হয়েছে। প্রেসিডেন্ট ঘনি বলেন, ‘আমরা শান্তি আলোচনায় তালেবানদের বক্তব্যকে অবশ্যই গুরুত্ব দেব।’ তিনি বলেন, আফগান সরকার তালেবান ও তাদের পরিবারকে পাসপোর্ট দেবে এবং তাদের জন্য ভিসা ইস্যু করবে। তাদের জন্য কাবুলে একটি অফিসও খুলে দেওয়া হবে।

তালেবান নেতাদের উপর যে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে সেটা প্রত্যাহারের জন্যও আফগান সরকার কাজ করে যাবে। প্রেসিডেন্ট ঘনি বলেন, আগে যুদ্ধ বিরতির বিষয়ে একমত হতে হবে। তালেবানরা যে একটি রাজনৈতিক দল সেটাও ঘোষণা করতে হবে। তিনি বলেন, ‘আফগান সরকারকে গ্রহণ করতে হবে এবং আমরা একসঙ্গে বন্দি তালেবানদের মুক্তি নিয়ে কাজ করব।’

তিনি বলেছেন, পাকিস্তান সরকারের সঙ্গে তারা সরকারিভাবেই কথা বলবেন।
সেকে- কাবুল প্রোসেস কনফারেন্সের আগের রাতে ঘানি টুইট করে বলেন, ‘আফগান জনগণের পক্ষে আমি তালেবান ও পাকিস্তানের কাছে শান্তি আলোচনার বিস্তারিত তুলে ধরব। আমরা আফগান্তিস্তান ও এতদাঞ্চলে শান্তি ও স্থিতিশীলতা চাই।’

দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়ার মার্কিন ডেপুটি সহকারী সচিব এলিস ওয়েলস বলেছেন, তালেবানদের সঙ্গে সংলাপের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের দরজা খোলা।
তালেবানরা গত সোমবার এক বিবৃতিতে বলেছিলেন, যুদ্ধের শান্তিপূর্ণ সমাধানের জন্য মার্কিন কর্মকর্তাদের সরাসরি তাদের রাজনৈতিক অফিসের সঙ্গে কথা বলতে হবে। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্র যদি আফগান জনগণের ন্যায্য দাবি মেনে নেয় এবং শান্তিপূর্ণ চ্যানেলের মাধ্যমে ইসলামিক এমিরাতের সঙ্গে আলোচনার জন্য এগিয়ে আসে তাহলে তারা শান্তিপূর্ণ সমাধানের জন্য সহযোগিতা করবে।

তালেবানদের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রকে স্বীকার করতেই হবে সামরিক শক্তি দিয়ে এই দ্বন্দ্বের অবসান ঘটানো যাবে না। সূত্র : ডন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত