প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

এই ঘটনা না হলে শ্রীদেবীর মৃত্যু হতো না! সামনে এলো চাঞ্চল্যকর তথ্য

রবিন আকরাম: রবিবার সকাল থেকেই সকলের উৎসুক জিজ্ঞাসা- কী এমন ঘটে গেল যে অকালে চলে যেত হল জনপ্রিয় বলিউড অভিনেত্রীকে? এই প্রসঙ্গে নানা জনে নানা মত তুলে ধরার চেষ্টা করেছেন গত কয়েক দিন ধরে। কিন্তু, সোমবার ‘অ্যাকসিডেন্ট্যাল ড্রাউনিং’-এর কথা ডেথ সার্টিফিকেটে উল্লেখ হতেই নতুন করে জল্পনা শুরু হয়।

এই পরিস্থিতিতে জল্পনার মাত্রা আরও চড়িয়েছেন অমর সিং। এই রাজনৈতিক নেতা একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে যে সাক্ষাৎকার দিয়েছেন তাতে এক নয়া জল্পনা তিনি উসকে দিয়েছেন।

অমর সিংহ জানিয়েছেন দুবাই-এ যে বিয়েতে শ্রীদেবী স্বামী বনি কাপুর ও মেয়ে খুশিকে নিয়ে যোগ দিয়েছিলেন সেখানে তারও নিমন্ত্রণ ছিল। অমর সিং-ও সেই বিয়ের জন্য দুবাই গিয়েছিলেন। কিন্তু, বিয়ের অনুষ্ঠান পুরোপুরি শেষ হওয়ার আগেই তাঁকে দেশে ফিরে আসতে হয়। উত্তরপ্রদেশ ইনভেস্টার সামিটি-এ হাজির থাকবেন বলে অমর সিং-কে চলে আসতে হয়েছিল। ওই একই অনুষ্ঠানে হাজির থাকার আমন্ত্রণ ছিল বনি কাপুরের কাছেও। তাই অমর সিং-এর সঙ্গে সঙ্গে তিনিও বিয়ের বাড়ির অর্ধেক অনুষ্ঠান ছেড়ে বেরিয়ে আসেন।

শ্রীদেবী ও বনি কাপুরের ঘনিষ্ঠ রাজনৈতিক নেতা অমর সিং জানিয়েছেন তারা এমনটা না করলেই পারতেন। অমর সিং জানিয়েছেন, বিয়ে বাড়ি অর্ধেক ছেড়ে তাদের বেরিয়ে আসা নিয়ে রাগ করেছিলেন শ্রীদেবী। বলিউড অভিনেত্রী নাকি স্বামীকে বলেছিলেন, তিনি যদি-ই বিয়ে বাড়িতে না থাকেন তাহলে তাঁর আর থেকে কাজ কী? শ্রীদেবী নাকি প্রচণ্ডভাবে বনি কাপুরকে বাধা দিয়েছিলেন বিয়ে বাড়ি অর্ধেক রেখে না বের হওয়ার জন্য।

অমরের মতে, আসলে শ্রীদেবী তার পছন্দের লোকেদের বাইরে থাকাটা পছন্দ করেন না। যাঁকে তার পছন্দ তাকে সবসময় তার চোখের সামনে থাকতে হবে। এমনকী, অমর সিং-কে-ও নাকি বিয়ে বাড়ি না ছাড়ার জন্য জেদ করেছিলেন। তাঁকে একা না ফেল যাওয়ার জন্য বনি-র কাছে অনুনয়ও করেছিলেন। কিন্তু, তখন মনে হয়েছিল শ্রীদেবীর এই আবদার রাখা সম্ভব নয়। কারণ, উত্তর প্রদেশে বিনোয়গ সম্মেলনে যোগ দেওয়াটা জরুরি ছিল।

শ্রীদেবী ও বনি কাপুরের মধ্যে কোনও ধরনের মনোমালিন্য বা ঝগড়ার সম্ভাবনা উড়িয়ে দিয়েছেন এই নেতা। তার মতে, শ্রীদেবী ও বনি কাপুর একে অপরকে প্রচণ্ড ভালোবাসেন। কেউ কাউকে ছেড়ে একদণ্ড থাকতে পারেন না। কিন্তু মাঝে মাঝে এমন কিছু কাজ পড়ে যায় যখন এই সব জিনিস আবার মানা যায় না।

অমর জানিয়েছেন, দুবাই থেকে তাদের চলে আসা নিয়ে শ্রীদেবী খুবই চুপচাপ হয়ে গিয়েছিলেন। তিনি প্রচণ্ড রেগেও ছিলেন। তবে, বনি কাপুর প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন সম্মেলন থেকে আবার দ্রুত দুবাই-এ ফিরে আসার। অমর সিং-এর কথায় শনিবার রাতে যখন বনি কাপুরের ফোনটা পেয়েছিলেন বিশ্বাস করতে পারছিলেন না। তার কথা বলার মতো অবস্থা ছিল না। তখন মনে হচ্ছিল শ্রীদেবীর কথা মেনে বিয়ে বাড়িতে থেকে গেলেই হত। তাহলে এমন ঘটনা হয়তো এড়ানো যেত।

সেই সঙ্গে অমর এও দাবি করেন, শ্রীদেবী কোনওদিনই হার্ড ড্রিঙ্কস নিতেন না। তাহলে তার রক্তে অ্যালকোহল। অমর এখনও শ্রীদেবীর মৃত্যুর আকস্মিকতার হিসাব মেলানোর চেষ্টা করে চলেছেন। সূত্র: ওয়ান ইন্ডিয়া

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত