প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দুর্নীতি করলে জেলে যেতে হবে: দুদক কমিশনার

খোকন আহম্মেদ হীরা, বরিশাল: দুর্নীতি দমন কমিশনের কমিশনার ড. নাসির উদ্দিন আহম্মেদ বলেছেন, দুর্নীতি করলে জেলে যেতে হবে। দুদকের মামলায় আদালতের রায়ে ইতোমধ্যে যার বিচার প্রভাবশালী দুর্নীতিবাজরা পেতে শুরু করেছে। দুর্নীতিবাজ যতই ক্ষমতাবান হোক, তার বিচার একদিন হবেই।

মঙ্গলবার সকালে দুদকের ৮৩ তম গণশুনানী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

দুর্নীতির বিরুদ্ধে জনগণের কাছে অন্তত সেই ম্যাসেজ পৌঁছে দিতে পারার দাবি করে কমিশনার আরও বলেন, আমরা সমাজে একটা ম্যাসেজ পৌঁছে দিতে পেরেছি। একই সাথে আমরা দেখিয়ে দিয়েছি, যতো বড় ক্ষমতাবানই হোকনা কেন দুদকের মামলায় তাদেরকে সাজা ভোগ করতে হয়েছে। অন্যান্য ক্ষমতাবানদের অভিযোগের ব্যাপারে দুদক কৌশলী পদক্ষেপে নিয়ে এগিয়ে যাওয়ায় বড় দুর্নীতিবাজদের ধরতে একটু সময় নেয়া হচ্ছে। তবে কেউ ছাড় পাবেনা।

দুদক কমিশনার দুর্নীতিবাজ সরকারী কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের উদ্দেশ্যে হুশিয়ারী উচ্চারণ করে বলেন, দুর্নীতি করবেন চাকরী হারাবেন, জেলে যাবেন। তাই একমাস সময় দেয়া হলো ভালো হয়ে যান। নতুবা রেহাই পাবেননা। দেশ প্রেমের শপথ নিন, দুর্নীতিকে বিদায় দিন শ্লোগনকে ধারন করে বরিশালের গৌরনদীতে

কমিশনার আরও বলেন, দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশ গড়তে পারলে এ সোনার বাংলাদেশকে আমরা আরও অনেক দুর এগিয়ে নিয়ে যেতে পারবো। তাই দুর্নীতির বিরুদ্ধে সবাইকে স্বোচ্ছার হওয়ার আহবান জানিয়ে সাম্প্রতিককালের বিভিন্ন পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের ব্যাপারে কমিশনার বলেন, এরজন্য কতিপয় অভিভাবকরা দায়ী রয়েছেন। তারা তাদের সন্তানদের ফাঁস হওয়া প্রশ্নপত্রের ব্যাপারে উৎসাহিত করে থাকেন। সরকারী সকল কর্মকান্ডে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার শতভাগ নিশ্চিত করতে গণশুনানী অনুষ্ঠানে কমিশনার বলেন, অনেকেই দুদকের নাম শুনলে ভয় পেয়ে থাকেন। আসলে সবাইকে বুঝতে হবে দুদক মানেই জনগন। সরকারী অর্থ ভোগকারীরা জনগনকে সঠিক সেবা দিচ্ছেন কিনা সেজন্যই দুদক নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

গণশুনানী অনুষ্ঠানে উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি আলহাজ খন্দকার শাহে আলম মঞ্জুর সভাপতিত্বে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আবুল কালাম তালুকদারের সঞ্চালনায় সর্বস্তরের জনগন গৌরনদী উপজেলার উল্লেখযোগ্য বিভিন্ন সরকারী সেক্টরের মধ্যে ভূমি, সেটেলমেন্ট, সাব রেজিষ্টি, পল্লী বিদ্যুত, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস, হিসাব রক্ষন, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন, সমাজ সেবা, সমবায় ও যুব উন্নয়ন অফিসসহ অন্যান্য সরকারী অফিসে সেবাগ্রহণকালে দুর্নীতি, হয়রানী এবং ভোগান্তির অভিযোগ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের উপস্থিতিতে সরাসরি উপস্থাপন করেন। তাৎক্ষনিক সংশ্লিষ্ট অভিযুক্ত কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা অভিযোগের যুক্তিখন্ডন করেন। অনেক কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা আসামিদের মতো দুদক কমিশনারের কাছ থেকে সময় চেয়ে নিয়ে সমস্যা সমাধানের আশ্বাস প্রদান করেন।

দুর্নীতি দমন কমিশনের উদ্যোগে ও উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সহযোগীতায় গৌরনদী উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে উপজেলা নির্বাহী অফিসার খালেদা নাছরিনের সভাপতিত্বে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আবুল কালাম তালুকদার, অতিরিক্ত জেলা পুলিশ সুপার তৌহিদুল ইসলাম, পৌর মেয়র মোঃ হারিছুর রহমান, দুর্নীতি দমন কমিশনের বরিশাল বিভাগের পরিচালক মোঃ আবু সাইয়েদ, প্রধান কার্যালয়ের পরিচালক মোঃ মনিরুজামান, উপ-পরিচালক এবিএম আব্দুস সবুর, রনজিত কুমার কমর্কার, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট সাহিদা আক্তার, গৌরনদী উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি মোঃ গিয়াস উদ্দিন মিয়া, সাংবাদিক মোঃ আসাদুজ্জামান রিপন, উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সাধারণ সম্পাদক আলহাজ মোঃ জামাল উদ্দিন প্রমুখ। গণশুনানী সভার শুরুতে সকাল নয়টায় উপজেলা চত্বরে দুর্নীতি প্রতিরোধে র‌্যালী ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত