প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সু চি’র পদত্যাগ দাবি করলেন তিন নোবেল জয়ী

এম. আমান উল্লাহ, কক্সবাজার: কক্সবাজারের উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনের পর বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ির তুমব্রু সীমান্তের নোম্যানস ল্যান্ডে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের অবস্থা জানতে সেখানে যান শান্তিতে নোবেল জয়ী তিন নারী। এ সময় সেখানে থাকা ধর্ষণের শিকার চার রোহিঙ্গা নারীর বর্বর নির্যাতরে কথা শুনেন তারা এবং মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সিলর ও শান্তিতে নোবেল পুরস্কার পাওয়া অং সান সু চি’র পদত্যাগ দাবি করেছেন নোবেল জয়ী এই তিন নারী।

মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) সকালে তুমব্রু সীমান্তের নোম্যানস ল্যান্ডে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের অবস্থা জেনে এ দাবি করেন তারা।

নোবেল জয়ী তাওয়াক্কল কারমান কাঁদতে কাঁদতে বলেন, ‘রোহিঙ্গাদের ওপর যে অমানবিক নির্যাতন চালানো হয়েছে তার প্রতিবাদ হিসেবে প্রথমে অং সান সু চি’র পদত্যাগ করা উচিত। তিনি যেহেতু শান্তিতে নোবেল বিজয়ী একজন নারী, পাশাপাশি মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সিলর, তাই এর দায়ভার তিনি এড়াতে পারেন না।’

আরেক নোবেল জয়ী মেরেইড ম্যাগুয়ার বলেন, ‘রোহিঙ্গা নারীদের যেভাবে ধর্ষণ ও নির্যাতন করা হয়েছে, এজন্য সু চি ও তার সরকারের আন্তর্জাতিক আদালতে বিচার হওয়া উচিত। রোহিঙ্গাদের নাগরিক অধিকার দিয়ে সসম্মানে মিয়ানমারে ফিরিয়ে নিতে আন্তর্জাতিক বিশ্বকে মিয়ানমারের ওপর চাপ দেওয়ার আহ্বান জানাই।’

শিরিন ইবাদি বলেন, ‘মিয়ানমারের রাখাইনে নির্যাতিত, নিপীড়িত রোহিঙ্গারা আজ পরবাসে জীবনযাপন করছেন। রোহিঙ্গাদের জন্য অমুসলিম রাষ্ট্রগুলো যেখানে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে, সেখানে মুসলিম দেশগুলো চুপ মেরে বসে আছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আজ এমন সংকটময় সময়ে মুসলিম দেশগুলো কোথায়? ইরান, সৌদি আরব, কাতার, আরব আমিরাত কোথায়? এসব প্রভাবশালী দেশ রোহিঙ্গা মুসলিমদের সেবায় আসছে না কেন?’

ক্যাম্প পরিদর্শন শেষে তারা বলেন, ‘মিয়ানমারে যে গণহত্যা, জাতিগত নিধন, গণধর্ষণ ও শিশুহত্যার মতো জঘন্য ঘটনা ঘটেছে তা মেনে নেওয়া যায় না।’ এ সংকট সমাধানে তারা আন্তর্জাতিক মহলের হস্তক্ষেপ কামনা করেন এবং মুসলিম বিশ্বকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত