প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সেনবাগে ছেলের সামনে মাকে ধর্ষণ, শাস্তি ১০ বার কান ধরে উঠবস!

নোয়াখালী প্রতিনিধি: নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলার ছাতারপাইয়া এলাকায় এক বিধবা নারী (৪০) ধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। বিষয়টি স্থানীয়দের জানানোর পর গ্রাম্য শালিসে অভিযুক্তদের ৫০ হাজার টাকা জরিমানা ও ১০ বার কান ধরে উঠবস করিয়ে সমাধান করা হয়েছে।

তবে এ শালিসের খবর পেয়ে সোমবার বিকেলে পুলিশ অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত মো. রুবেল ও নুর নবী এবং শালিসদার আবুল কাশেম ওরফে মাছ কাশেমকে আটক করেছে।

ধর্ষণের শিকার ওই নারী আরো জানান, ২৪ ফেব্রুয়ারি স্থানীয় শালিসদার আবুল কাশেম ও মো. হানিফ ছাতারপাইয়া বাজারে শালিসে বসেন। শালিসে শিশু, কিশোর, তরুণ ও যুবকসহ বিভিন্ন বয়সের প্রায় অর্ধশত লোক ছিল। এদের সামনেই শালিসে রায় দেয়া হয় উপস্থিত দুই অভিযুক্ত রুবেল ও নুর নবীর ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা এবং ১০ বার কান ধরে উঠবস।

এদিকে বিধবা ধর্ষণের শিকার হওয়ার ঘটনাটি সোস্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে জানাজানি হওয়ার পর তৎপর হয়ে ওঠে থানা-পুলিশ। পুলিশের একটি দল দুপুরে ভিকটিমকে মামলার জন্য থানায় নিয়ে আসে। আরেকটি দল ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে নুর নবী ও রুবেলকে এবং শালিসদার আবুল কাশেমকে আটক করে। ধর্ষণ ও শালিসের ঘটনায় জড়িত বাকিরা গা ঢাকা দিয়েছে।

সেনবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হারুন অর রশিদ চৌধুরী জানান, বিধবা নারীকে ধর্ষণের ঘটনায় রুবেল ও নুর নবী নামে দুইজন এবং আবুল কাশেম নামে এক শালিসদারকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত অন্যদেরও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। ভিকটিম বাদী হয়ে এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত