প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘মিয়ানমার সকালে যেটা বলে, বিকালে বলে উল্টোটা’

ডেস্ক রিপোর্ট  : মিয়ানমার সরকারকে বিশ্বাস করা যায় না উল্লেখ করে তাদের বিষয়ে আরও সতর্ক হওয়ার তাগিদ এসেছে জাতীয় সংসদে। জাসদের সংসদ সদস্য মইনুদ্দিন খান বাদল সংসদে দেয়া সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে এই সতর্ক বার্তা উচ্চারণ করেন।বাদল ব্রেইন স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে তিন মাস শয্যাশায়ী ছিলেন। অসুস্থ শরীরেই তিনি সোমবার সংসদে যোগ দেন। আর আট মিনিটের মতো কথা বলেন তিনি। এ সময় বারবার তিনি হাঁপিয়ে উঠছিলেন। বেশ কষ্ট করেই বক্তব্য শেষ করতে হয়েছে তাকে।সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বাদল আশা করেন, আগামী নির্বাচনে জিতে বর্তমান সরকার আবারও ক্ষমতায় আসবে। তবে সংসদ সদস্যদেরকে আরও নম্র ও বিনয়ী হয়ে ভোট চাওয়ার পরামর্শ দেন তিনি।মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে সেনা অভিযানের মুখে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা শরণার্থীদেরকে দেশটির ফিরিয়ে না নিতে নানা অজুহাতের প্রতি ইঙ্গিত করে সরকারের প্রতি ‘সতর্ক বাণী’ দেন বাদল।

গত ২৫ আগস্ট রাখাইন রাজ্যে সরকারি বাহিনীর ওপর সশস্ত্র গোষ্ঠীর হামলার পর থেকে ১১ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশে এসেছে। তাদেরকে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়ার বিষয়ে বাংলাদেশের সঙ্গে দুটি চুক্তি ও সমঝোতা স্মারকও সই করেছে দেশটি। কিন্তু নানা অজুহাতে প্রত্যাবাসন শুরু করছে না দেশটি।বাদল সংসদে বলেন, ‘মিয়ানমারের সঙ্গে আমাদের হাজারো চেষ্টা সত্ত্বেও তাদের সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক ভবিষ্যতে কঠিন হবে। আমাদের কূটনীতিতে বিশ্ববাসী চোখ মেলেছে। তারপরও বলব মিয়ানমারের সম্পর্কে আরও সতর্ক হতে, আরও ইনডেপথ স্টাডি করতে।’‘অসম্ভব অপরিণামদর্শী, অসম্ভব ডিসট্রাস্টফুল (বিশ্বাস করা যায় না) গভর্নমেন্ট। সকালে যেটা বলে, বিকালে তার উল্টোটা বলে। স্টাডি মোর, যাতে আমাদের দক্ষিণাঞ্চল থেকে নতুন করে কোনো স্রোত সৃষ্টি না হয়।’বাদল বলেন, ‘একটি উন্নত দেশ হওয়া জন্য তিনটি কনডিশন পূর্ণ করতে হবে। এর একটি স্বাস্থ্যখাত, একটি শিক্ষাখাত এবং একটি প্রতিরক্ষা খাত। ‘‘আপনি কোর কম্পিটেন্সি ইন ডিফেন্স, মাসল যোগাড় করলেন, কিন্তু প্রয়োজনীয় মুহূর্তে মাসল ফ্ল্যাক্ত করতে না পারলেন, তাহলে তো আর মাসল যোগাড় করে লাভ নাই।’

বিদ্যুৎ সংকট মোকাবেলায় সরকারের নেয়া পরমাণু বিদ্যুৎ প্রকল্প নিয়েও আরও ভাবতে বলেন বাদল। বলেন, ‘বিশ্বের বহু জায়গায় এটনমি এনার্জি কাটছে, রিনিউয়েবল এনার্জিতে যাচ্ছে। আমি বাদ দিতে বলব না, রিথিংক করতে বলব। অনেক জায়গায় বাদ দিচ্ছে।’বক্তব্যের শুরুতেই বাদল তার অসুস্থতার বিষয়ে বলেন, ‘পরিবারকে বলেছি, মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে এসেছি, পুনর্জন্ম। আরও যদি ঠিক মত ফিরে আসি, তাহলে বাকি সময়টুকো মানুষের জন্য দেবো।’অসুস্থ থাকাকালে রাজনীতি নিয়ে যথেষ্ট ভাবনা চিন্তা করতে পেরেছেন জানিয়ে তিনি তার ধারণা তুলে ধরেন সংসদ। বলেন, ‘পৃথিবীর ইতিহাসে বিভিন্ন জাতি বিভিন্ন সময় তার উল্লম্ফন ঘটিয়েছে। চীনে শ্যান ডাইনেস্টি, জাপানে মিন ডাইনেস্টি এটা করেছে। আমি মনে করি বাঙালির এখন উল্লম্ফনের সময়, ওপরের দিকে ওঠার সময়। এই উঠার পেছনে, এই গাঙ্গেয় ভূমিতে এত মানবিক, ঋজু, শক্ত একজন নারী আসেনি যে সমস্ত জাতিকে অভিষ্ঠ লক্ষ্যের দিকে ঠেলে নিয়ে গেছে।’‘আমি মনে করি বাঙালির উন্নয়নের জন্য শেখ হাসিনাকে আরও সময় দেয়া বাঞ্ছনীয়।’

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার দণ্ডের পর বিএনপি নেতা মওদুদ আহমদের করা একটি মন্তব্য নিয়েও কথা বলেন বাদল। বলেন, ‘পত্র পত্রিকায় দেখি, যত শিক্ষিত লোক, তত অদ্ভুত অদ্ভুত কথা বলে। মওদুদ সাহেবের কথায় দেখলাম, এক দিনে ১০ লাখ ভোট বেড়ে যাবে। তার মানে ৩০ দিনে তিন কোটি ভোট বেড়ে যাবে। তার মাসে ১০ মাস পর নির্বাচন হলে ৩০ কোটি ভোট বেড়ে যাবে।’‘মওদুদ সাহেবের খেয়াল নাই, পুরা বাঙালি জাতি এই পারে, ওই পারে, ভারতের শিলচরে, সব জায়গায় মিলিয়ে, বিশ্বের সব জায়গায় মিলিয়ে ৩০ কোটি আছে। মুখ দিয়ে যখন ওনারা বলেন, কোনো হিসাবনিকাশ করেন না।’জাপিত জীবন মানুষের মন মানসিকতা নির্ধারণ করে-কার্ল মার্কসের এই উক্তি উল্লেখ করে বাদল বলেন, ‘এই যে এত কিছু করে মানুষকে এত কিছু করে আন্দোলনে নামাতে বিএনপি ব্যর্থ হলো, তার মানে মানুষকে মানুষকে বুঝার ক্ষেত্রে ব্যর্থতা।’

‘এই মানুষ আমাদের সঙ্গে আছে। আমি আমার বন্ধু সাংসদদেরকে বলব, আমরা আরও নম্রভাবে, আরও বিনয়ী হয়ে মানুষের কাছে যদি যেতে পারি, মানুষ আমাদেরকে আবারও সময় দেবে।’‘নেহেরুকে বাদ দিলে ভারতে ১৫ বছর রাজত্বের পার্লামেন্টারি প্রসেসে কেউ সুযোগ পায়নি। আমরা সে সুযোগ পেতে যাচ্ছি।’নিজ নির্বাচনী এলাকায় কালুরঘাট সেতু নির্মাণের উদ্যোগ নেয়ায় প্রধানমন্ত্রী এবং রেলমন্ত্রীকেও ধন্যবাদ জানান বাদল। বলেন, ‘এই কালুরঘাট সেতু নিয়ে বহুবার আপনাদের কাছে বিতর্ক করেছি, কতবার আমার মনেও নাই অবশেষে দেখছি মাপামাপি হচ্ছে।’এই সেতুর নাম শেখ হাসিনার নামে করারও প্রস্তাব দেন বাদল। সেই সঙ্গে কর্ণফুলীর পারে নির্মিতব্য বঙ্গবন্ধু মেরিটাইম ইউনিভার্সিটির নির্মাণ কাজ আরও দ্রুততার সঙ্গে করার দাবি জানান তিনি।

(ঢাকাটাইমস

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত