প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নাইজেরিয়ায় বোকো হারামের হামলার পর ১১০ কিশোরী নিখোঁজের অভিযোগ

সান্দ্রা নন্দিনী: নাইজেরিয়ার উত্তরাঞ্চলীয় প্রদেশ ইয়োবের ডাপচি শহরের একটি গ্রামে সোমবার ইসলামি জঙ্গিগোষ্ঠী বোকো হারামের হামলার পর থেকে একটি স্কুলের ১১০ কিশোরী এখনও পর্যন্ত নিখোঁজ রয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে দেশটির তথ্য মন্ত্রণালয়।

এক বিবৃতিতে জানানো হয়, সরকারিভাবে নিশ্চিত হওয়া গেছে, ডাপচির স্কুলটিতে বোকো হারামের হামলার পর এখনও পর্যন্ত ১১০জনকে পাওয়া যাচ্ছে না। তবে,  তাৎক্ষণিকভাবে  বিমান বাহিনীর একটি বিশেষ দল সেখানে পাঠানো হয়েছে। তারা নিখোঁজ মেয়েদের খুঁজে বের করতে সর্বত্মক চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

এদিকে, বোকো হারামের মূলোৎপাটনের অঙ্গীকারের মধ্যদিয়ে ২০১৫ সালে ক্ষমতায় আসা নাইজেরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুহাম্মাদু বুহারি এতজন কিশোরীর নিখোঁজের পরিস্থিতিকে ‘জাতীয় বিপর্যয়’ হিসেবে অভিহিত করেছেন।

প্রসঙ্গত, ‘পশ্চিমা শিক্ষা হারাম’ নাইজেরিয়ার ইসলামি বিদ্রোহী গোষ্ঠী বোকো হারামের একটি অন্যতম প্রচারণা। ২০১৪ সালে দেশটিতে বোকো হারাম কর্তৃক ২৭০ স্কুলছাত্রীকে অপহরণের ঘটনার প্রেক্ষিতে ‘আমাদের মেয়েদের ফেরত আনা হোক’-এই স্লোগানে বিশ্বব্যাপী প্রচারণার ঝড় ওঠে।

এছাড়া, ২০০৯ সাল থেকে ইসলামি জঙ্গিগোষ্ঠী বোকো হারাম এপর্যন্ত প্রায় ২০হাজার মানুষকে হত্যা, ২০লাখ মানুষকে বাস্তুচ্যুত এবং হাজার হাজার মানুষকে অপহরণ করেছে। এই প্রেক্ষিতে, দেশটিতে দীর্ঘ ৯বছর ধরে চলা সহিংস পরিস্থিতিকে ‘বিশ্বের জঘন্যতম মানবিক বিপর্যয়’ হিসেবে আখ্যা দিয়েছে জাতিসংঘ। রয়টার্স

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত