প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

যে কারণে ইমরান খানকে বিয়ে করলেন বুশরা!

ডেস্ক রিপোর্ট : সাবেক পাকিস্তানি ক্রিকেটার ইমরান খান ৬৫ বছর বয়সে নানা নাটকীয়তার পর তিন নম্বর বিয়েটা সেরে ফেললেন। তবে ক্রিকেটার থেকে রাজনীতিবিদ হওয়া সুপারস্টার ইমরান খানের তৃতীয় বিয়ে নিয়ে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে আলোচনা যেন থামছে না। সাধারণ মানুষের মধ্যেও চর্চা কম নেই। বৃদ্ধ বয়সে এসে কেন হঠাৎ করে ব্যস্ত রাজনৈতিক ক্যারিয়ারের মধ্যে তৃতীয় বিয়ের সিদ্ধান্ত নিলেন ইমরান খান? এমন প্রশ্ন অনেকেরই।

জানা যায়, এখানে জড়িয়ে আছে রাজনীতির মারপ্যাঁচ। পাকিস্তান তেহরিক ই ইনসাফ (পিটিআই) দলের চেয়ারম্যান ইমরান খান এই মুহূর্তে পাকস্তানি রাজনীতিতে বড় নাম। বিরোধী রাজনীতিকদের মধ্যে তিনি, ইমরান খানই সবচেয়ে এগিয়ে। এই অবস্থায় ইমরানের নিকাহ-র পিছনে রয়েছে আজব রহস্য। যাঁকে বিয়ে করেছেন ইমরান সেই বুশরা মানেকার আগের স্বামী ছিলেন খওহর মানেকা। পাকিস্তানের কাস্টমসের এক সিনিয়র কর্মকর্তা। তাঁর সঙ্গে বুশরার কোনো রকম অশান্তির কথা তিনি অস্বীকার করেছেন। মানেকাও বিচ্ছেদ প্রসঙ্গে কোনো গোলমালের কথা জানাননি।

তাহলে কেন বিচ্ছেদ হল বুশরা ও খওহরের?
এ ব্যাপারে খওহরের দাবি, একদিন বুশরা এসে তাঁকে জানান, তিনি স্বপ্নাদেশ পেয়েছেন ইমরানকে বিয়ে করার জন্য। তাহলেই নাকি ইমরান সমস্ত বাধা পেরিয়ে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হতে পারবেন। এবং সেটা হলে পাকিস্তান এই জর্জরিত অবস্থা থেকে মুক্তি পাবে ও অসাধারণ দেশে উন্নীত হবে।

এটাও শোনা গিয়েছিল যে, গত ১ জানুয়ারিই বুশরা মানেকার সঙ্গে ইমরানের নিকাহ হয়ে গিয়েছিল। এরপর উপযুক্ত আধ্যাত্মিক সময় বিচার করে তা আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করা হয়।

ইমরান খান ১৯৯৫ সালে ব্রিটিশ ধনকুবের জেমাইমা গোল্ডস্মিথকে বিয়ে করেন। ২০০৪ সালে তাদের বিচ্ছেদ হলে ২০১৫ সালে রিহাম খানকে বিয়ে করেন ইমরান। এ বিয়ে টেকে মাত্র ১০ মাস। তিন বছরের মাথায় আবারও বিয়ের পিড়িতে বসলেন ক্রিকেটার থেকে রাজনীতিবিদ বনে যাওয়া ইমরান খান। সূত্র : বাংলাদেশ প্রতিদিন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত