প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

হবিগঞ্জের লাখাইয়ে নারীকে পুড়িয়ে হত্যা

নিজস্ব প্রতিনিধি : হবিগঞ্জের লাখাই থানার ভাদিকারা গ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে একজন নারীকে পুড়িয়ে হত্যার খবর পাওয়া গেছে। নিহতের নাম খাতুন বিবি (৩৫)। রোববার (২৫ ফেব্রুয়ারি) ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

স্থানীয় সূত্র জানায়, ভাদিকারা গ্রামের উত্তর মহল্লার মতলিব মিয়া (পিতা শুকলাল মিয়া) ও হাজী সোয়াব মিয়ার (পিতা মৃত রজব মিয়া) মধ্যে জায়গা জমি সংক্রান্ত দীর্ঘ দিনের বিরোধ ছিল।

এ নিয়ে আদালতে মামলাও চলছিল। কিন্তু গত ১৯ ফেব্রুয়ারি সোমবার সকালে সোয়াব মিয়ার পক্ষে স্থানীয় মেম্বার মুস্তফা আহমদ ও কবির মিয়ার নেতৃত্বে প্রায় ৫০ জন লোক দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে মতলিব মিয়ার বাড়িতে অতর্কিত হামলা চালায়। বাড়িঘর বাঙচুর করে এবং ঘরের ভেতর নারী ও শিশু রেখে দরজা বন্ধ করে পেট্রল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। ভয়ে মতলিব মিয়ার স্ত্রী মাসুমা (৪০) কোনো রকম বাইরে চলে আসলে হামলাকারীরা দা-রামদা দিয়ে তাকে কুপিয়ে জখম করে। এসময় মতলিব মিয়ার ভাই আরজুদ আলী এগিয়ে আসলে তাকেও কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। এদিকে অস্বাভাবিক আগুন থেকে মতলিব মিয়ার বোন খাতুন বিবি (৩৫) ও তার মেয়ে খাদিজা ঘর থেকে বেরুতে পারেনি। ফলে তাদের শরীরের অধিকাংশ পুড়ে যায়।

পরে লাখাই থানার আইন শৃংখলা বাহিনী ঘটনা স্থলে উপস্থিত হয়ে আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করে। উপজেলার কমপ্লেক্স কর্তৃপক্ষ অবস্থার গুরুতর দেখে তাদেরকে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করে। খাতুন বিবি ও মাসুমাকে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালেও না রাখা হলে তাদেরকে ঢাকা মেডিকেলে ভর্তি করা হয়। পরে ঢাকা মেডিকেলেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) খাতুন বিবি মারা যায়।
এ ঘটনায় লাখাই থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত