প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘টিএপিআই গ্যাস পাইপলাইন ঝড়ে শান্তির পায়রার মতো, তাকে রক্ষা করতে হবে আমাদের’


ইমরুল শাহেদ : ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী এমজে আকবর তুর্কিমেনিস্তান-আফগানিস্তান-পাকিস্তান-ভারত (টিএপিআই) গ্যাস পাইপলাইন প্রকল্পকে রুপক হিসেবে ‘ঝড় কবলিত শান্তির পায়রার’ সঙ্গে তুলনা করেছেন। তিনি বলেন, ‘সাধ্য মতো চেষ্টা করে এটাকে আমাদের রক্ষা করতে হবে।’
শুক্রবার আফগানিস্তানের হেরাত প্রদেশে টিএপিআই নির্মাণ অভিষেক অনুষ্ঠানে আকবর বলেন, ‘সহিংসতার এ সময়ে টিএপিআই আকাশ দিয়ে যাবে। আফগানিস্তানের উপর আমাদের পূর্ণ আস্থা আছে, তারা ট্রান্সমিশনকে নিরাপদ রাখার জন্য প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। নিরাপত্তা বাহিনীকে উৎসাহিত করতে দায়িত্বটা অন্যদেরও ভাগাভাগি করে নিতে হবে।’
তিনি বলেন, ‘সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে কাজ করতে আমাদের প্রত্যেক অংশীদারকেই অঙ্গীকারের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হতে হবে। সন্ত্রাসীরা মানুষের কল্যাণে আঘাত করে। নিরাপত্তার জন্যই তাদের অভয়ারণ্যকে প্রত্যাখান করতে হবে। টিএপিআই অনেকটা ঝড়ে কবলিত শান্তির পায়রার মতো। আমাদের যথাসাধ্য চেষ্টা করে তাকে রক্ষা করতে হবে।’
মন্ত্রী বলেছেন যে ভারতপক্ষ এই স্বপ্নিল প্রকল্পের বাস্তবায়নে সকল অঙ্গীকার পূরণ করতে বদ্ধপরিকর। ভারত অবশ্যই তার দায়িত্ব ও করণীয়কেও সম্মান দেখাবে। ভারতের কাছে টিএপিআইয়ের গুরুত্বের বিষয়টি তুলে ধরেন মন্ত্রী।
এমজে আকবর উল্লেখ করেন, টিএপিআই ভারতের কাছে গুরুত্বপূর্ণ একটা বিষয়। কারণ ভারত জ্বালানি খাতের সঙ্গে পুরোপুরিভাবে সংহত। আমাদের প্রয়োজন বিপুল পরিমাণে পরিচ্ছন্ন জ্বালানি। আমরা এখন বিশ্বের চতুর্থ এলএনজি আমদানিকারক দেশ। আরও বিভিন্ন সূত্র থেকে আমাদের অনেক জ্বালানি প্রয়োজন।
মন্ত্রী এই পাইপলাইনকে জনগণের পাইপলাইনে পরিণত করার উপর গুরুত্ব দেন। ১,৮১৪ কিলোমিটার দীর্ঘ এই পাইপলাইনটির মাধ্যমে তুর্কেমিনিস্তান থেকে সরবরাহ করা গ্যাস আফগানিস্তান, পাকিস্তান এবং ভারত পাবে।
তুর্কেমিনিস্তানেও এই পাইপলাইনটি অভিষেক অনুষ্ঠিত হয়েছে। আফগানিস্তান এবং তুর্কেমিনিস্তানের অনুষ্ঠানে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শহীদ খাকান আব্বাসী ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন তুর্কেমিনিস্তানের প্রেসিডেন্ট গুর্বানগুলি বারদিমুহামেদৌ এবং আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি। সূত্র : ইয়ন টিভি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ