প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

প্রজাতন্ত্রের মালিক জনগণ নাকি আওয়ামী লীগ, ফখরুলের প্রশ্ন (ভিডিও)

হ্যাপি আক্তার: বিএনপির শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হস্তক্ষেপ নিয়ে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, সংবিধানে বলা হয়েছে, প্রজাতন্ত্রের সকল মালিক জনগণ। কিন্তু আসলে বাস্তবতাই হচ্ছে প্রজাতন্ত্রের সকল মালিক আওয়ামী লীগ ও তাদের সাজানো আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

তিনি আরো বলেন, একদলীয় কর্তৃত্ববাদী শাসন বিরোধী দল তাদের সমালোচনাকে বিপদজনক মনে করে রাষ্ট্র ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত গণবিরোধী শক্তি। আইনের শাসন ও আওয়ামী লীগ একসাথে চলতে পারে না। গণতন্ত্রের দাবিতে বিরোধী দলের আওয়াজ শুনলেই উত্তেজিত হয়ে সরকারি বাহিনী গণতান্ত্রিকা শক্তির ওপরে ঝাপিয়ে পড়ে।

আজ শনিবার বিএনপির কালো পতাকার শান্তিপূর্ণ কর্মসূচির ওপর আইনশৃঙ্খা বাহিনীর হস্তক্ষেপে তিব্র নিন্দা জানিয়ে এসব কথা বলেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সম্পূর্ণ বিনা উসকানিতে বিএনপির শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে আক্রমণ চালিয়ে এরা আবার প্রমাণ করেছে যে দেশ এখন দুঃশাসন চলছে । গণতন্ত্রের শেষ নিশানাকে শেষ করার জন্যই এই সরকার অগণতান্ত্রিক পন্থা অবলম্বন করেছে।

ফখরুল বলেন, বিএনপির অসংখ্য নেতা-কর্মীদের ভিজিয়ে দিয়ে লাঠি চার্জ করতে থাকে। তার কিছুক্ষণ পরে পুলিশ আমাদের লক্ষ্য করে টিয়ার গ্যাস ছুড়লে ৫ জনের ভেতর একজন দম বন্ধ অবস্থায় হিটলারের মতো অবস্থা সৃষ্টি হয়। কালো পতাকা প্রদর্শনীতে শান্তিপূর্ণ অবস্থানের কর্মসূচিতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নির্যাতনে বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ সহ অসংখ্য মহিলা ও পুরুষ নেতা-কর্মীরা গুরুতর অবস্থায় আহত হয়েছেন। তাদের অনেকের অবস্থা অনেকটা আশঙ্কাজনক।

বিএনপির যে সকল নেতা-কর্মীদের আটক করা হয়েছে তাদের অবিলম্বে নিঃশর্তে মুক্তির জোর দাবিও জানান তিনি। সূত্র : ডিবিসি নিউজ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত