প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

জমি অধিগ্রহণ ও উন্নয়ন ব্যয় মেটাতে হিমশিম খাচ্ছে বেজা

প্রতিবেদক: জমি অধিগ্রহণ ও উন্নয়ন ব্যয় মেটাতে হিমশিম খাচ্ছে বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষ (বেজা)। সংকট মেটাতে ১৮টি জোনের জন্য ৫ বছরে ১৫ হাজার কোটি টাকার বিশেষ তহবিল চায় সংস্থাটি। প্রধানমন্ত্রীর কাছে উপস্থাপনের জন্য একটি প্রস্তাবনা তৈরি করেছে বেজা। তবে সরকারের অপেক্ষায় না থেকে সমন্বিত অর্থনৈতিক পরিকল্পনা নেয়ার তাগিদ বিশ্লেষকদের।

বেজা কর্মকর্তারা জানায়, ইনফ্রাস্ট্রাকচার ফাইন্যান্স ফান্ড থেকে শ্রীহট্ট অর্থনৈতিক অঞ্চলের জন্য ২শ ৯২ কোটি, মিরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চলের জন্য ১শ কোটি ও সাবরাং ট্যুরিজম পার্কের জন্য ৪৮ কোটি টাকা ঋণ নিচ্ছে বেজা।

৩০ হাজার একর জুড়ে দেশের সবচেয়ে বড় অর্থনৈতিক অঞ্চল হচ্ছে চট্টগ্রামে মিরসরাইয়ে। বেজার হিসাবে, শুধু পানি ও বর্জ্য শোধন ব্যবস্থার জন্যই এখানে ব্যয় হবে ৮ হাজার কোটি টাকা। তৈরি হচ্ছে ৪ লেনের ৩৯ কিলোমিটার সংযোগ সড়ক।

ভেতরে চলছে ৪ লেনের আড়াইশ কিলোমিটার সড়ক নির্মাণ। সমুদ্র থেকে শিল্প এলাকা রক্ষায় গড়ে তোলা হচ্ছে ১০ মিটার উঁচু ২০ কিলোমিটার বাঁধ। এতে ব্যয় হবে আরও কয়েক হাজার কোটি টাকা।

এসব কাজের জন্য উন্নয়ন প্রকল্প এডিপি থেকে অর্থ বরাদ্দ দিচ্ছে সরকার। তবে প্রকল্প পাসের দীর্ঘসূত্রতায় টাকা ছাড় হচ্ছে দেরিতে। একারণে ব্যয় মেটাতে চড়া সুদে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে ঋণ নিচ্ছে বেজা।

বিশ্লেষকেরা বলছেন, অর্থ জোগাতে বেজাকে বাজারমুখী হতে হবে। সনাতনি পদ্ধতিতে না গিয়ে উদ্ভাবনী উপায়ে কাজ করার পরামর্শ তাদের। এছাড়া, প্রকল্প দ্রুত অনুমোদনের জন্য পরিকল্পনা কমিশনের বিশেষ দল গঠন করার পরামর্শও দিয়েছেন বিশ্লেষকেরা।

বেজা জানিয়েছে, এ পর্যন্ত ৭৯টি অর্থনৈতিক অঞ্চল অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে ৫৬টি সরকারি এবং অংশীদারীত্বের ভিত্তিতে। এজন্য অধিগ্রহণ করা হচ্ছে ৭৯ হাজার একর জমি। সূত্র: ইন্ডিপেনডেন্ট টিভি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত