প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

এইচ-ওয়ান বি ভিসার অনুমোদন কঠিন করায় বিপাকে ভারতীয়রা

মাহাদী আহমেদ : মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বর্তমান ট্রাম্প প্রশাসন কর্তৃক দেশটিতে আসা অভিবাসীদের প্রদানকৃত বিশেষ ভিসা সুবিধা ‘এইচ-ওয়ান বি ভিসা’র অনুমোদনকে কঠিন করে ফেলার সিদ্ধান্তে বিপাকে পড়েছে ভারতীয়রা।

যুক্তরাষ্ট্রের ট্রাম্প প্রশাসন সম্প্রতি এক নতুন নীতি ঘোষণা করেছে যেটার ফলে অভিবাসীদের যারা এক বা একাধিক তৃতীয় পক্ষের কাজের সাথে জড়িত তাদের জন্য বিশেষ সুবিধা প্রদানকারী এ এইচ-ওয়ান বি ভিসা প্রাপ্তি বেশ কঠিন হয়ে পড়বে। আর এর ফলে ভারতীয় আইটি প্রতিষ্ঠানসমূহ এবং তাদের কর্মীরা সবচেয়ে বেশি প্রভাবিত হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

নতুন নীতির অধীনে একটি প্রতিষ্ঠানকে আরও বিস্তারিতভাবে প্রমাণ করতে হবে যে, তার তৃতীয় পক্ষের হয়ে কাজ করা এইচ-ওয়ান বি কর্মীর এ পেশাতে প্রতারণার কোনো ইতিহাস নেই।

এইচ-ওয়ান বি সেবাটি একজন ব্যক্তিকে অস্থায়ীভাবে যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা প্রাপ্তিতে সহায়তা করে। এর ফলে যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান যে সকল ক্ষেত্রে তাদের স্থানীয় লোকজনের দক্ষতার অভাব রয়েছে সে সকল ক্ষেত্রে বিদেশী দক্ষ লোকদের নিয়োগ প্রদাণ করতে পারে।

এই বিশেষ সুবিধাটি থেকে সবচেয়ে বেশী সুফল আদায়কারীদের মধ্যে ভারতীয় আইটি প্রতিষ্ঠানগুলো অন্যতম ছিলো।

তাদের উল্লেখযোগ্য সংখ্যক কর্মী যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন তৃতীয় পক্ষীয় প্রতিষ্ঠানের হয়ে কাজ করছে। যুক্তরাষ্ট্রের ব্যাংকিং, পরিবহন এবং বাণিজ্যিক খাতের উল্লেখ্যযোগ্য সংখ্যক প্রতিষ্ঠান তাদের সেবা প্রদানের ক্ষেত্রে ভারতীয় এ আইটি কর্মীদের ওপর নির্ভর করে থাকে।

ট্রাম্প প্রশাসনের ঘোষিত ৭ পৃষ্ঠার এই নতুন পলিসিতে যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকত্ব ও অভিবাসন বিষয়ক সংস্থা ‘ইউএস সিটিজেনশিপ এন্ড ইমিগ্রেশন সার্ভিসেস’কে কোনও ব্যক্তি যখন তৃতীয় পক্ষীয় কোনও প্রতিষ্ঠানের হয়ে কাজ করবে শুধুমাত্র সেই সময়ের জন্য তাকে ভিসা প্রদানের ক্ষমতা প্রদান করেছে।

এর ফলে এ এইচ-ওয়ান বি ভিসার মেয়াদ ৩ বছরের চেয়েও কমে আসতে পারে যা কিনা আবার এ ভিসার ৩ বছরের মেয়াদের সাথে সাংঘর্ষিক। ইয়ন নিউজ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ