প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

২৯ বছর পর ছবি মুক্তি, অধীর অপেক্ষায় দর্শক

ডেস্ক রিপোর্ট : ‘লিবাস’ ছবিটি তৈরি হয়েছিল ১৯৮৮ সালে। কিন্তু ওই সময় ছবিটির ছাড়পত্র দেয়নি ভারতের চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ড। ‘লিবাস’ ছবির বিরুদ্ধে অভিযোগ, ছবিটি একটু বেশিই প্রাপ্তবয়স্ক। যাকে ‘এ’ ক্যাটাগরিতেও ছাড়পত্র দেওয়া যায় না।

এক শহুরে দম্পতি। তাদের নিয়ে ‘লিবাস’ ছবির চিত্রনাট্য। ছবিতে বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক গুরুত্বের সঙ্গে তুলে ধরা হয়। পাশাপাশি আছে স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্কের টানাপোড়েন। চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ড কর্তৃপক্ষের মতে, বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক আর স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্কের টানাপোড়েনের পাশাপাশি একটু বেশি মাত্রায় খোলামেলা দৃশ্য দেখানো হয়েছে। তা সমাজের ওপর বিরূপ প্রভাব ফেলবে। যার ছাড়পত্র দেওয়া ভারতের চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডের পক্ষে সম্ভব নয়। ছবির পরিচালক গুলজার। চিত্রনাট্য তিনিই লিখেছেন। ছবিতে অভিনয় করেছেন নাসিরউদ্দিন শাহ, শাবানা আজমী, রাজ বাব্বর, উৎপল দত্ত, সুষমা শেঠ, আন্নু কাপুরসহ অনেকে। ছবির গানের সুর ও সংগীত পরিচালনা করেছেন রাহুল দেব বর্মণ। ছবিটি পরিবেশনার দায়িত্বে রয়েছে জি স্টুডিওস।

‘লিবাস’ ছবির প্রযোজক বিকাশ মোহন। তাঁর দুই ছেলে অমল বিকাশ মোহন আর অনশুল বিকাশ মোহনের উদ্যোগেই নাকি এবার মুক্তি পাচ্ছে ছবিটি। অমল বিকাশ মোহন পিটিআইকে জানিয়েছেন, ‘ছবিটি ওই সময় নানা কারণে মুক্তি দেওয়া সম্ভব হয়নি। ছবিটি নিয়ে আমার বাবার স্বপ্ন ছিল। এবার আমরা সেই স্বপ্নের বাস্তব রূপ দিতে পারছি। এ বছরের মাঝামাঝি ছবিটি রিলিজ করা হবে।’

ভারতে প্রখ্যাত চলচ্চিত্র পরিচালক, গীতিকার, চিত্রনাট্যকার, প্রযোজক ও কবি গুলজারের জন্মদিন ১৮ আগস্ট। এ বছর গুলজারকে তাঁর ৮৩তম জন্মদিনে ‘লিবাস’ ছবিটি উৎসর্গ করা হবে। হিন্দুস্তান টাইমস, ইন্ডিয়া টাইমস, প্রথম আলো

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত