প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

হোক্স নিউজের ফাঁদে আমজনতা

শেখ মিরাজুল ইসলাম : সোশ্যাল মিডিয়ায় কিছু বানোয়াট খবর এত বাস্তবসম্মতভাবে উপস্থাপন করা হয়, সাধারণ কিংবা  বোদ্ধা আপামর পাঠককুল তা বিশ্বাস করে পরবর্তীতে বিব্রত বোধ করেন। সম্প্রতি এক স্প্যানিশ মিডিয়ার বরাতে জানানো হলো, হলিউড সেলিব্রেটি সিলভারস্টার স্ট্যালোন মারা গেছেন। খবরের সাথে ‘র‌্যাম্বো’, ‘রকি’ মুভিখ্যাত অভিনেতা স্ট্যালোনের ছবি ছাপিয়ে নিউজ ফিডে দাবি করা হলো, এতদিন ধরে এই জনপ্রিয় অভিনেতা তার প্রোস্টেট ক্যান্সারের খবর লুকিয়ে রেখেছিলেন। স্বাভাবিকভাবে প্রথম দর্শনে ভক্তকূল মুষড়ে পড়েন এই বিয়োগান্ত সংবাদে।
পরে নির্ভরযোগ্য সংবাদ মাধ্যমে খবরটি ভিত্তিহীন প্রমাণ করে একাত্তর বছর বয়সী হলিউড অভিনেতা বহাল তবিয়তে আছেন তা প্রমাণ করতে আসল মৃত জনৈক স্ট্যালোনের ছবি ছাপিয়ে বিভ্রান্তি দূর করা হয়। কিন্তু এর মধ্যে লক্ষাধিক মানুষ এই সংবাদ শেয়ার করে সোশ্যাল মিডিয়ায় শোকের পরিবেশ তৈরি করে ফেলেন। এই ভুল খবর প্রকাশের দায়ভার কেউ আর নেয়নি।

অবশ্য এই জাতীয় ‘হোক্স নিউজের’ উল্টো প্রতিক্রিয়াও আছে। যার ফায়দা তোলেন আমাদের দেশে শীর্ষ পর্যায় থেকে শুরু করে সাধারণ রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ। তারা ‘বিভ্রান্তিমূলক বা অতিরঞ্জিত সংবাদ’ অপবাদটিকে নিজ উদ্দেশ্যে কাজে লাগাতে ভুল করেন না। অশালীন দায়িত্বজ্ঞানহীন কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য হরহামেশা বিতরণ করে জনগণের মনে ভীতি, ঘৃণা ও আনাস্থা তৈরি করার পর যখন চতুর্মুখী চাপে পড়েন, তখন ‘আমি তো কথাটা এভাবে বলিনি?’, ‘এটা মিডিয়ার ভুল ব্যাখ্যা’, ‘হোক্স নিউজ ছড়ানো হচ্ছে’ বা ‘মিডিয়া সৃষ্ট গুজব’ ইত্যাদি তুলনা দিয়ে পার পেয়ে যেতে চান। যারা  বোঝার তারা বোঝেন, আড়ালে মুখ টিপে হাসেন। এই হাসি আকর্ণবিস্তৃত হওয়ার আগেই উচিত হবে তাদের এই অভ্যাস পরিত্যাগ করা।

লেখক : চিকিৎসক ও লেখক

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত