প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

তারা কিভাবে মুক্তিযুদ্ধ করলো?

মে.জে.(অব.) সৈয়দ মুহম্মদ ইবরাহিম বীর প্রতীক : ১৯৭২ সালে যে কাজটা করা উচিত ছিল তা করতে এতদিন লেগে গেল। সে কাজটা তৎকালীন সরকারের সদ্য স্বাধীন দেশের অন্যান্য কর্মব্যস্ততার জন্য করা হয়নি। সদ্য যুদ্ধ ফেরতদের একটা তালিকা করে ফেলা উচিত ছিল। যারা বাংলাদেশকে শত্রু মুক্ত করলো তাদের একটা তালিকা করে ফেলা উচিত ছিল। অথবা যারা শহীদ হল তাদের তালিকা করা উচিত ছিল। কিন্তু সেটা করা হয়নি। এখন বাস্তবতা হল, এই বর্তমান সরকারের মধ্যে একটি মনোভাব পরিলক্ষিত হয়, সেটা হল রণাঙ্গনের মুক্তিযোদ্ধাদেরকে তারা অবহেলা করছে। যদিও এখন তাদের তালিকা করছে।

কারা কারা মুক্তিযুদ্ধ করেছে আর কারা করেনি ৪৭ বছর পর সেটা খুঁজে বের করা কঠিন কাজ। এই ফাঁকে অনেক ভুয়া ব্যক্তি ঢুকে গেছে। আসল মুক্তিযোদ্ধা যারা ছিল, তাদেরকে অবমূল্যায়ন করা হচ্ছে। এই কঠিন পরিস্থিতিতে জাতির সাথে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেয়া উচিত ছিল। বর্তমান সরকার উল্টা পাল্টা কাজ করছে। ১৯৯৬ থেকে ২০০১ যখন এই সরকার ক্ষমতায় ছিল, তখন তারা ‘মুক্তিবার্তা’ নামে ম্যাগাজিন বের করতো। এবার ক্ষমতায় এসে তারা শুরু করেছে আরেক প্রক্রিয়া।

এই সরকারের উপর আমার কোনো আস্থা নেই যে, তারা মুক্তিযোদ্ধাদের সঠিক তালিকা প্রকাশ করবে এবং তাদের মূল্যায়ন করবে। আমি এই প্রক্রিয়ার বিরোধিতা করছি। তবে যারা প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা ছিল এবং বাদ পড়ে গিয়েছে তাদেরকে তালিকা ভুক্ত করার জন্য আশা প্রকাশ করছি। শুনেছি, বারো বছরে অনেকে নাকি মুক্তিযুদ্ধ করেছে। এই মুহূর্তে আমার নাতি বারো বছরের। তাকে আমি দেখছি। তারা কিভাবে মুক্তিযুদ্ধ করলো? এটা আমার বোধগম্য নয়।

পরিচিতি : চেয়ারম্যান, বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টি
মতামত গ্রহণ : সানিম আহমেদ
সম্পাদনা : মোহাম্মদ আবদুল অদুদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত