প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আসামে নাগরিক তালিকা
রোহিঙ্গাদের মতো আরও একটি সংকট তৈরি হতে পারে

ডেস্ক রিপোর্ট : ভারতের আসাম রাজ্যে নতুন নাগরিক তালিকা (এনআরসি) তৈরি করছে সেখানকার কর্তৃপক্ষ। তালিকার কার্যক্রমের শুরু থেকেই আশঙ্কা করা হচ্ছে, বহু বাংলাভাষীকে সেখান থেকে বিতাড়িত করা হবে। আর এ ব্যাপারটি নিয়ে বাংলাদেশের পক্ষ থেকেও উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তারা বুধবার বলেছেন, আসামের ঘটনা চলমান রোহিঙ্গা সংকটের মতো আরও একটি সংকট তৈরি করবে বাংলাদেশের জন্য। খবর দ্য হিন্দুর।

‘বাংলাদেশ ফেয়ারস এক্সোডাজ অব বেঙ্গালিস ফ্রম আসাম’ শীর্ষক প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, সফররত ভারতীয় সাংবাদিকদের উদ্দেশে বাংলাদেশের কর্মকর্তারা বলেছেন, আসামে নাগরিক তালিকার কার্যক্রম দু’দেশের মধ্যকার সম্পর্ক হুমকিতে ফেলেছে। আর এর সুযোগ নেবে বিরোধী পক্ষ ও উগ্রবাদীরা, যারা আওয়ামী লীগের শাসনের বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী বলেছেন, তিস্তার পানি বণ্টন চুক্তি নিয়ে সংকটের পর নাগরিকত্ব ইস্যুটি আরেকটি হতাশার কারণ হবে। যদি ওই প্রক্রিয়ায় আসামের বাংলাভাষী জনগণের একটি অংশকে দেশ থেকে বের করে দেওয়া হয়, তাহলে তাতে আরেকটি রোহিঙ্গা সংকটের মতো ঘটনা ঘটতে পারে। এ কথার প্রতিধ্বনি শোনা গেছে মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বক্তব্যে। তিনি বলেছেন, আমরা তিস্তার পানির যে অংশের মালিক আমাদের সেই অংশ দিতে অস্বীকৃতি জানাচ্ছেন দিদিমনি (পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়)।

আওয়ামী লীগের একাংশ বিশ্বাস করে, শেখ হাসিনা ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের বিদ্রোহ দমনে যে সমর্থন দিয়েছেন, তার প্রাপ্য ভারত দিচ্ছে না। তারা বলছেন, শেখ হাসিনার অধীনে আওয়ামী লীগ সরকার কিছু না পেয়েই ভারতকে সহায়তা করেছে। তিনি উলফা নেতাদের আটকে সহায়তা করেছেন। কিন্তু আসাম থেকে যদি নতুন করে শরণার্থীর ঢল নামে তাহলে এত বছরে অর্জিত দ্বিপক্ষীয় সহযোগিতা বিনষ্ট হবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অর্থনৈতিক উপদেষ্টা মসিউর রহমান বলেছেন, যদি কোনো মানুষ কোনো স্থানে কিছুদিন বসবাস করে, তাহলে তাকে ওই স্থানের মানুষ হিসেবে গণ্য করা হয়। তারা যেখানে অবস্থান করে, সেখানে তাদের স্বাধীনতা থাকা উচিত। কিন্তু দৃশ্যত মনে হচ্ছে, মুসলিমরা বাস করবে বাংলাদেশে। হিন্দুরা ভারতে।

শেখ হাসিনা সরকার বিভিন্ন ইস্যু মোকাবেলা করছে। এ অবস্থায় আসাম নিয়ে ঢাকার উদ্বেগের বিষয় জানিয়ে দিল্লির প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ভারতকে অবশ্যই আমাদের সাহায্য করতে হবে। সমকাল

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত