প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভারতীয় সেনাপ্রধানের মন্তব্যকে রাজনৈতিক বললেন এআইডিএফ প্রধান; সেনাবাহিনীর অস্বীকার

আসিফুজ্জামান পৃথিল : ভারতের উত্তর পূর্বাঞ্চলের রাজ্য আসামের তথাকথিত ‘অবৈধ মুসলিম অভিবাসীদের’ নিয়ে করা বক্তব্যকে রাজনৈতিক আখ্যা দিয়েছেন, অল ইন্ডিয়া ইউনাইটেড ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (এআইইউডিএফ) এর সভাপতি বদরুদ্দিন আজমল।

এক টুইট বার্তায় সেনাপ্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াতের বত্তব্যকে হতভম্ভকর বলেন তিনি। একই সাথে তিনি বলেন, একটি গণতান্ত্রিক এবং অসাম্প্রদায়িক রাজনৈতিক দল বিজেপির থেকে বেশী দ্রুত বাড়ছে কিনা তা ভাববার অধিকার কে দিয়েছে জেনারেল রাওয়াতকে! তার দাবী মতে এআইইউডিএফ বা আম আদমি পার্টির মতো বিকল্প দলগুলোর দ্রুত বৃদ্ধির মূল কারণ বড় দলগুলোর ভেতরের নৈরাজ্য।

এর আগে বুধবার ভারতের সেনাপ্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াত দিল্লীতে এক অনুষ্ঠানে বলেন, ভারতে বাংলাদেশিদের অনুপ্রবেশ ‘পরিকল্পিত’। এটা চীনের সমর্থনে পাকিস্তানের ‘ছায়া যুদ্ধ (প্রক্সি ওয়ার)। এই যুদ্ধের প্রধান লক্ষ্য হচ্ছে ভারতের উত্তর-পূর্ব অঞ্চলে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টি করে রাখা।

নিজের বক্তব্যের পক্ষে যুক্তি তুলে ধরে জেনারেল রাওয়াত আরোও বলেন, আসামে বদরুদ্দিন আজমলের নেতৃত্বাধীন ‘অল ইন্ডিয়া ইউনাইটেড ডেমোক্র্যাটিক ফোরাম’র (এআইইউডিএফ) প্রভাব দিন দিন বাড়ছে। খেয়াল করে দেখুন, ১৯৮০ দশকে বিজেপি’র সমর্থন যে হারে বেড়েছে, এআইইউডিএফ’র সমর্থন আসামে তার চেয়েও দ্রুত বেড়েছে।’

রাওয়াত আরও বলেন, ‘আমি মনে করি, আমাদের উত্তরাঞ্চলীয় সীমান্তের (চীন) সমর্থন নিয়ে পশ্চিমা প্রতিবেশী এই ছায়াযুদ্ধের খেলাটা ভালোই খেলে। এ এলাকাকে অস্থির রাখতে চায় তারা। এভাবে অনুপ্রবেশ ঘটতেই থাকবে। এর সমাধান হলো সমস্যা শনাক্ত করা ও সামগ্রিকভাবে তা পর্যবেক্ষণ করা।’

তবে ভারতের সেনাবাহিনী জেনারেল রাওয়াতের বক্তব্যকে রাজনৈতিক মানতে নারাজ। তাঁরা বলছে, জেনারেল রাওয়াতের বক্তব্য কোনমতেই ধর্মীয় বা রাজনৈতিক নয়। এটি শুধুমাত্র ‘অবৈধ অভিবাসন’ নিয়ে তাঁর বক্তব্য। – টাইমস অফ ইন্ডিয়া

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত