প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

এতিমের টাকা চুরি করেছেন বলেই শাস্তি ভোগ করতে হচ্ছে: প্রধানমন্ত্রী

সারোয়ার জাহান: খালেদা জিয়া এতিমের টাকা চুরি করেছেন বলেই আজ তাকে শাস্তি ভোগ করতে হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, ‘বিএনপি আন্দোলন করে। কিসের আন্দোলন? টাকা চুরি করে তাদের নেত্রী জেলে গেছেন। চোরের জন্য আন্দোলন করছে।

বৃহস্পতিবার রাজশাহীর সরকারি আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগ আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ উন্নয়ন করে আর বিএনপি ধ্বংস করে। আমরা প্রথম মোবাইল ফোন দেশের মানুষের হাতে তুলে দিয়েছিলাম। বিএনপির আমলে মানুষ মোবাইল চোখেই দেখে নি।

তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার পুত্র সবাইকে খাম্বা দিয়েছে, বিদ্যুৎ দেয় নি। আমরা ২০২১ সালের মধ্যে সবাইকে বিদ্যুৎ দিবো প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি। রাজশাহীতে গ্যাস ছিল না। আমরা এখানে গ্যাস দিয়েছি। যাতে শিল্প-কারখানা গড়ে ওঠতে পারে। কৃষক এখন নিজেই মোবাইলের মাধ্যমে দেখতে পারে, কোন মাটি ভালো আর কোন মাটিতে চাষ হবে না।

বিএনপি চেয়ারপারসনের জেলে যাওয়ার প্রসঙ্গ তুলে প্রধানমন্ত্রী বলেন, খালেদা জিয়া গ্রেফতার হয়েছেন। ১৯৯১ সালে এতিমখানা করবে বলে বিদেশে থেকে টাকা এনেছেন। সেই এতিমখানা কই? এতিম কই? এতিমদের নামে টাকা এনে ওই টাকা নয়-ছয় করে লুটেপুটে খেয়েছেন। লুট করা, চুরি করা তাদের চরিত্র। ২৭ বছরে এতিমের টাকা সুদে-আসলে বেড়েছে, তা খেয়েছেন খালেদা জিয়া আর তার দলের লোকজন। এতিমের কোনও কাজে লাগেনি।’

তিনি বলেন, ‘বিএনপি মানুষের কল্যাণ করতে পারে না। লুটপাট করে খেতে পারে। কেউ এতিমের টাকার লোভ সামলাতে না পারলে দেশের মানুষকে দেবেটা কী?’

প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, বিএনপি সরকার আমলে তাদের ক্যাডাররা আওয়ামী লীগের অনেক নেতাকর্মীদের নির্মমভাবে হত্যা করে। শিবির ক্যাডাররা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের হাত-পায়ের রগ কেটে হত্যা করে। বিএনপির সন্ত্রাসীদের হাত থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য কিভাবে মানুষ কষ্ট করেছে আমরা দেখেছি। এই রাজশাহীতে তারা আপনাদের দিয়েছিলো লাশের উপহার।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত